প্রাণের সংযুক্তি

নান্দনিক

সাহিত্য

pb-ads

নির্বাচিত

সর্বজয়া

pb-ads

খেলার জগৎ

প্রাণের কথা

এ দেশের মানুষ মুক্তিযুদ্ধ করেছিলো। স্বাধীনতা চেয়ে প্রাণ দিয়েছিলো অকাতরে। আমাদের মায়েরা, আমাদের বোনেরা তাদের সম্ভ্রম উৎসর্গ করেছিলেন স্বাধীনতার বেদীতে। বাংলাদেশ নামে একটি রাষ্ট্র স্বাধীন ভাবে পৃথিবীর মানচিত্রে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছিলো সেই রক্তাক্ত পথ বেয়ে। আমার সব সময় মনে হয় যে জাতি তার স্বাধীনতার জন্য কখনো রক্ত দেয়নি সে জাতি বড় অভাগা। এ দেশের মৃত্তিকা বড় সৌভাগ্যবান, বড় পবিত্র। এই মাটি ভিজেছে মুক্তিযোদ্ধাদের রক্তে। মৃত্যু নিশ্চিত জেনেও স্বাধীনতার জন্য সেই মৃত্যুকে তুচ্ছ করেছিলেন আমাদের সাহসী পূর্বপুরুষেরা।
তাঁদের এ আত্নত্যাগের কথা আমরা বিস্মৃত হই কীভাবে? ভুলে যাই কী করে তারা স্বাধীনতার জন্য, মানুষের অধিকারের জন্য, খাদ্য, বস্ত্র বাসস্থান নিশ্চিত করার জন্য লড়াই করেছিলেন? তাঁরা আমাদের জীবন দিয়ে শিখিয়ে গেলেন সেই লাইন, ‘‘আমি মৃত্যুর চেয়ে বড়’’। মহান বিজয় দিবসে এই দেশ আর মাটি যেন গোটা জীবন আমাদের কাছে মূল্যবান হয়ে থাকে এই প্রার্থনাই করি। এই দেশের পবিত্র মাটিতেই যেনো সারা জীবন মাথা ঠেকাতে পারি।
এবার প্রাণের বাংলার বিজয় দিবস সংখ্যা প্রকাশিত হলো শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে। স্বাধীনতার বেদীতে জীবন উৎসর্গকারী সেই প্রজ্ঞাবান মানুষদের স্মৃতির উদ্দেশ্যেও রইলো গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা।
আপনারা ভালো থাকবেন।

sign

শেষ সংযুক্তি

bankasia-bd

এই সংখ্যায় যা থাকছে

pb7
pb-6

ক্যামেরার চোখে

খাঁচার ভেতর অচিন পাখি? না, খাঁচার পাখিকে অচিন বলে কী হবে! আকাশের পাখিও তো আমাদের অচেনা। আসলে জীবনের দুটো প্রান্তই আসলে মানুষের কাছে গোটা জীবন অচেনাই থেকে যায়। জীবনকে আমরা সারা জীবন চিনতে পারলাম না বলেই তো এতো জটিলতা। এই মানব জনম কেন এতো কন্কময় কে জানে!
খাঁচার ভেতর অচিন পাখি? না, খাঁচার পাখিকে অচিন বলে কী হবে! আকাশের পাখিও তো আমাদের অচেনা। আসলে জীবনের দুটো প্রান্তই আসলে মানুষের কাছে গোটা জীবন অচেনাই থেকে যায়। জীবনকে আমরা সারা জীবন চিনতে পারলাম না বলেই তো এতো জটিলতা। এই মানব জনম কেন এতো কন্কময় কে জানে!