প্রাণের সংযুক্তি

নান্দনিক

সাহিত্য

নির্বাচিত

খেলার জগৎ

প্রাণের কথা

সমাজ এগিয়ে চলেছে এক অদ্ভূত, ভোগী, আদর্শহীন অস্থির সময়ের হাত ধরে। অপরিমিত বিত্ত, কালো টাকা, অসংযম, ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা আর হিংসা মানুষের সাধারণ আবেগ আর মানবিকতাকে ঠেলে দিচ্ছে ভুল কোন প্রান্তে। আর তার বিপর্যয় নেমে আসছে পরিবারের কাঠামোর ওপর। অনিরাপদ হয়ে পড়ছে আপনার ছেলে-সন্তান। বিভ্রান্ত হয়ে তারা জড়িয়ে পড়ছে অপরাধমূলক কর্মকান্ডের সঙ্গে। বাবা অথবা মায়ের যথাযথ সতর্কতা এবং যত্নের অভাবে তারা পা বাড়াচ্ছে অচেনা বিপদের দিকে।
আজ এই বিপদের হাত থেকে ভবিষ্যতের সন্তানকে রক্ষা করতে হলে দায়িত্ব নিতে হবে বাবা-মায়েদেরই। শুধু সন্তান জন্ম দেয়া আর তাদের প্রাচুর্য আর বিত্তের ঘেরাটোপে বড় করার মাঝে কোন গৌ্রব নেই। সন্তানকে মানবিক শিক্ষায় বড় করে তোলার মধ্যেই রয়েছে গৌরব। গৌরব দেশকে, মানুষকে ভালোবাসার মধ্যে নিহিত। আসুন, আমরা সেই ভালোবাসার শিক্ষা দিই আমাদের সন্তানদের।
আপনারা ভালো থাকবেন।

এবার নতুন একটি বিষয় সংযোজিত হলো পত্রিকায়। লেখার সঙ্গে বাম দিকের কোণে দেখা মিলবে একটি বেলের ছবি। বেলের ওপর ক্লিক করে আপনারা মোবাইল ফোন অথবা পিসিতে নিয়মিত পেতে পারেন প্রাণের বাংলার সব আপডেট।

sign

শেষ সংযুক্তি

এই সংখ্যায় যা থাকছে

মুক্তমত

আমাদের সমাজে মেয়েরা কি নিরাপদ?

কিছু শিখি

Allot (এ্যালট) – বরাদ্দ করা
Astral (এ্যাস্ট্রাল) – তারকাসন্ধীয়
Aggression (এ্যাগরেশন) – জবর দখল।
Armour (আর্মার) – বর্ম
Author (অথার) – গ্রন্থকার

ক্যামেরার চোখে

খাঁচার ভেতর অচিন পাখি? না, খাঁচার পাখিকে অচিন বলে কী হবে! আকাশের পাখিও তো আমাদের অচেনা। আসলে জীবনের দুটো প্রান্তই আসলে মানুষের কাছে গোটা জীবন অচেনাই থেকে যায়। জীবনকে আমরা সারা জীবন চিনতে পারলাম না বলেই তো এতো জটিলতা। এই মানব জনম কেন এতো কন্কময় কে জানে!
খাঁচার ভেতর অচিন পাখি? না, খাঁচার পাখিকে অচিন বলে কী হবে! আকাশের পাখিও তো আমাদের অচেনা। আসলে জীবনের দুটো প্রান্তই আসলে মানুষের কাছে গোটা জীবন অচেনাই থেকে যায়। জীবনকে আমরা সারা জীবন চিনতে পারলাম না বলেই তো এতো জটিলতা। এই মানব জনম কেন এতো কন্কময় কে জানে!