দেশে ফিরলো টাইগাররা,সবার বিশ্বাস তাসকিন আবার ফিরবে

Taskin-Ahmed-celebrates-wkt-150319-G940513পরাজয়ের যন্ত্রণা বুকে নিয়ে দেশে ফিরেছে টাইগার বাহিনী। আজ সকাল নয়টায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দল দেশে ফিরেছে। সেময় দলের সদস্যদের বিপর্ন্ত আর ক্লান্ত দেখাচ্ছিলো। অবশ্য দেশের মাটিতে পা রেখে ক্যাপ্টেন মাশরাফি গণমাধ্যমকে বলেছেন, এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তাদের অভিজ্ঞতার ঝুলিতে অনেককিছু জড়ো করেছে। ভবিষ্যতে এই দল টি-টোয়েন্টি খেলায় যে কোন দলকে হারাতে সক্ষম। বিশ্বকাপ খেলতে গিয়ে এবার নিভর্রশীল দুই বোলারের ওপর আ্ইসিসির নিষেধাজ্ঞা এলোমেলো করে দিয়েছিলো পুরো দলের মনোবল। তারপর ভারতের সঙ্গে এক রানে পরাজয় দলটিকে আরও হতাশার মাঝে ছুঁড়ে দেয়। এদিকে এখনো দুই বোলারকে নিয়ে জটিলতা কাটেনি। পুরো বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড পক্ষ থেকেও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে।এদিকে গত দিন ধরে চা-এর দোকান থেকে অফিস, অফিস থেকে গলির মোড়, বাড়ির ডাইনিং টেবিল- সবজায়গায় এখন একই আলোচনা-তাসকিন আহমেদ আর আরাফাত সানির কি হবে? আইসিসি বাংলাদেশের বিষয়ে আরও কতটা কঠোর হবে? আমরা কেন এসব ঘটনার প্রতিবাদ করছি না?
কয়েকদিন আগে দেশের মাটিতে পা রাখেছেন তাসকিন আহমদ ও আরাফাত সানি।  বিমানবন্দরে নেমে তাসকিন বলেন, খারাপ সময় কাটিয়ে দ্রুত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে চান তিনি। সে সময় দেশবাসীর কাছে দোয়া চান এবং এই দুঃসময়ে তার পাশে থাকার জন্য বিসিবি ও দেশবাসীর প্রতি ধন্যবাদও জানান।
তাসকিন বলেন, সবার আগে বলতে চাই আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন । এখন সামনে একটাই লক্ষ্য, পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়া। আর আপনাদের দোয়া থাকলে আবার সব ঠিক হয়ে যাবে।
বোলিং অ্যাকশন ঘিরে বিতর্ক ওঠায় মানসিকভাবে বিব্রত তাস্কিন বলেন, ‘সবার জন্যই এটা একটা ধাক্কা লাগার মতোই বিষয় শুধু আমি না, যেকোনো বোলারের বোলিং অ্যাকশন নিয়ে কথা উঠলে বোলারের গায়ে লাগবেই’। তিনি আর ও বলেন, দেশবাসীর ও বিসিবি যে সমর্থন দিচ্ছে তাতে আমি গর্বিত যে আমি বাংলাদেশের একজন ক্রিকেটার হতে পেরেছি’। কষ্টের কারণ বলতে, সবাই যখন খেলছে তখন আমি হোটেলে বসে খেলা দেখছি। তবে আমরা ভালো খেলছি। এটা চিন্তা করলেই হয় টি২০ তে আমরা আগে কেমন খেলতাম আর এখন কেমন খেলছি”।

imagesএরই মাঝে বিসিবি এক কর্মকর্তা আরাফাত সানির ক্রিকেটে ফেরা নিয়ে সুখবর দিয়েছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড-বিসিবি’র গেম ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার নাজমুল আবেদিন ফাহিম একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলকে জানান, দুই থেকে তিনমাসের মধ্যে সানি ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন।

তিনি আরো জানান, বোলিং অ্যাকশনের বৈধতা যাচাইয়ে ক্রিকেট বোর্ড আগের তুলনায় অনেক বেশি সচেতন। আর খুব দ্রুতই সবকিছু করা হবে।
বিসিবির ওই কর্মকর্তা আরো জানান, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড দলের দুই ক্রিকেটারকে মাঠে ফেরানোর জন্য কাজ করছে। বিসিবি দ্রুত দলের ওই দুই ক্রিকেটারকে মাঠে দেখতে চায় বলে জানান তিনি।
এর আগে দেশের কোনও ক্রিকেটারকে নিয়ে এতো আলোচনা হয়নি। আর এই আলোচনায় শেষ                                                       পর্যন্ত বাদ গেলেন না বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও।
বিসিবিএই কর্তা শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় এক হোটেলে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেন। তার মতে, আইসিসি তাসকিনের প্রতি অবিচার করেছে। শুধু তাসকিনের প্রতি অবিচারের কথাই বলেননি পাপন, বাংলাদেশ দলকে পরবর্তীতে বৈরি আবহাওয়াতে খেলতে হতে পারে বলেও আশঙ্কা তার!
সানি ও তাসকিনের বিরুদ্ধে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগ উঠায় স্বাভাবিকভাবেই তাদের পরীক্ষা দিতে হয়েছিলো। papnপরীক্ষার পর তাদের অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের অভিযোগে নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি। সানির ব্যাপারে তেমন কোনও আপত্তি না থাকলেও তাসকিনের ব্যাপারটা মানতে পারছেন না কেউই। পরবর্তীতে আইনজীবির মাধ্যমে আপিলও করে বিসিবি। বিসিবির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা আইসিসির সঙ্গে এ নিয়ে তর্কেও জড়িত হন। তাতেও কাজ হয়নি। তাসকিনের নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখে আইসিসি। তাতে বেজায় চটেছেন বিসিবি সভাপতিও। শেষপর্যন্ত না পেরে বলেই দিলেন, ‘তাসকিনের প্রতি অবিচার করেছে আইসিসি।’
তাসকিন পরীক্ষা দিয়ে শিগগিরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন বলে আত্মবিশ্বাসী পাপন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ` আমার বিশ্বাস তাসকিন আবার পরীক্ষা দিলেই বৈধতা পাবে। কেননা তার কোনও সমস্যা আমরা দেখিনা। আমার পূর্ণ বিশ্বাস ও দ্রুতই ফিরে আসবে` ।