এতো প্রেম তবু ঘর বাঁধেননি জ্যাকুলিন বিসিট

বিয়ে করেননি কিন্তু প্রেম করেছেন অর্ধ ডজন। অভিনয়ের জন্য জয় করেছেন ‘গোল্ডেন গ্লোব’ পুরস্কার ও একাধিক নমিনেশন। ফরাসী সরকার অভিনয়ে অবদানের জন্য তাকে ২০১০ সালে প্রদান করেছে সে দেশের সর্বোচ্চ সম্মান ‘লিজিয়ন দ্য অনার’। প্রখ্যাত নিউজউইক পত্রিকা তাকে দিয়েছে শতাব্দীর সেরা সুন্দরীর খেতাব। তিনি অভিনেত্রী জ্যাকুলিন বিসিট। পুরো নাম উইনিফ্রেড জ্যাকুলিন ফ্রেসার বিসিট।


জ্যাকুলিন বিসিটের জন্ম ইংল্যান্ডে ১৯৪৪ সালে। বড় হয়ে ওঠা এবং লেখাপড়া ইংল্যান্ডেই। সিনেমায় অভিনয় করতে আসেন ১৯৬৫ সালে। কিন্তু ১৯৬৮ সালে ‘দি ডিটেকটিভ বুলেট’ ও দি সুইট রাইড’ ছবিতে অভিনয় করেই প্রতিশ্রুতীশীল নবাগত হিসেবে পেয়ে যান গোল্ডেন গ্লোব নমিনেশন।
তবে সত্তরের দশককে বলা যায় জ্যাকুলিন বিসিটের স্বর্ণযুগ। তিনি অভিনয় করেন ‘এয়ারপোর্ট’ ও ‘ডে ফর নাইট’ ছবিতে। ডে ফর নাইট ছবিটি সে বছর সেরা বিদেশী ভাষার ছবির পুরস্কার জিতে নেয় অস্কার অনুষ্ঠানে। সেই সময়েই ‘ডিপ’ ছবিতে টি-শার্ট পড়ে পানির নিচে অভিনয় করে ব্যাপক আলোড়ন তৈরী করেন এই অভিনেত্রী। সিক্তবসনা এই সুন্দরী অভিনেত্রীর শরীরের বাঁক লক্ষ দর্শকের হৃদয়ে ঝড় তোলে। রাতারাতি আলোচনার শীর্ষে উঠে আসেন বিসিট।
তবে শরীরী আবেদনের পাশাপাশি অভিনয় দক্ষতায়ও এই অভিনেত্রী আলোড়ন তৈরী করেছিলেন। তা-না হলে কি রোমান পোলানিস্কির মতো বিশ্বখ্যাত পরিচালকের ‘কুল ডি স্যাক’ ছবিতে অভিনয়ের জন্য ডাক পেয়ে যান ষাটের দশকের মাঝামাঝি?
একের পর এক বিশ্বখ্যাত অভিনেতাদের সঙ্গে অভিনয় করেছেন জ্যাকুলিন। এদের মধ্যে ছিলেন, শ্যান কনোরি, পল নিউম্যান, মার্শেলো মাস্ত্রোয়ানী, স্টিভ ম্যাকুইন প্রমূখ। জেমস বন্ডের ‘ক্যাসিনো রয়্যাল’-এ হয়ে উঠেছিলেন যৌনতার দেবী।
জ্যাকুলিন বিসিটের জীবনে ভালোবাসা পর্বও অভিনয় জীবনের মতোই আলোচিত। এক জীবনে কাউকে স্থায়ী সঙ্গী হিসেবে না জড়ালেও প্রেমে জড়িয়েছেন ফরাসী-কানাডীয় অভিনেতা মিচেল সারাজিনের সঙ্গে। এক সময়ে সখ্য জমে ওঠে মরক্কোর ধনী ব্যবসায়ী ভিক্টর দারাইয়ের সঙ্গে। কিন্তু সেখানেও স্থির থাকেননি তিনি। একে একে প্রণয় জালে আটকে ফেলেছেন রুশ অভিনেতা আলেকজান্ডার গুদেনভ ও সুইস অভিনেতা ভিনসেন্ট পেরেজকে। এক তুর্কী মার্শাল আর্ট পারদর্শী এমিন বোজটেপির সঙ্গেও ভালোবাসার সম্পর্ক ছিলো তার।
জীবনে এতো প্রেম তবু ঘর বাঁধা হলো না কেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে জ্যাকুলিন বলেছেন, ‘আমি তাদের প্রতি ভালোবাসায় এতোটাই সৎ ছিলাম যে কখনোই মনে হয়নি আমরা বিয়ে করিনি।’

বিনোদন ডেস্ক
তথ্যসূত্রঃ উইকিপিডিয়া
ছবিঃ গুগল