এবার ছুটি চান তামিম

আহসান শামীমঃ সাকিবের ছুটির দরখাস্তের ধাক্কা না কাটতেই নতুন খবর হলো দক্ষিন অফ্রিকার সঙ্গে ওয়ান ডে থেকে বিশ্রাম চান বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল। বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলতে বর্তমানে তিনি পাকিস্তান অবস্থান করছেন । বোর্ডের উচ্চ পর্যায়ের  নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছেন, ‘তামিম দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের সময় ছুটির কথা ভাবছেন। যদিও তামিম এ এখন পর্যন্ত বোর্ডের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ছুটির আবেদন করেন নি। তবে তার ঘনিষ্ঠ মহল থেকে এরকম খবরই মিলেছে।

অস্ট্রেলিয়া সিরিজের আগেই সাকিব বলেছিলেন, ‘আমি বেশি বেশি টেস্ট খেলতে চাই। বাংলাদেশ খুবই কম টেস্ট খেলছে। এর পরপরই দক্ষিন অফ্রিকায় টেষ্ট থেকে ছুটি চাইলেন। ছুটি মন্জুরও হয়ে গেল। ছুটি চাওয়ার এই প্রক্রিয়াকে সাকিবের ব্যাখ্য “বিশ্রাম জনিত কারন” । যদিও সাকিবের এই হঠাৎ টেষ্ট থেকে ছুটি চাওয়ার বিষয়টা সংগত কারনেই সহজ ভাবে মেনে নিতে পারেননি অনেকেই। ক্রিকেট বোদ্ধা মহল মনে করছেন, বাংলাদেশ দলের মধ্যে এক ধরণের অশান্তির সুর শোনা যাচ্ছে। দলের ভেতরকার বন্ধনগুলো কিছুটা হলেও নড়বড়ে হয়ে পড়েছে।

প্রধান নির্বাচক নান্নুর কানেও তামিমের ছুটি বিষয়ক পরিকল্পনার খবর পৌঁছেছে। নান্নু জানান, ‘তামিমের মাধ্যমে সরাসরি নয় বিভিন্ন মাধ্যম থেকে খবরটা আমার কানেও এসেছে।’

বিসিবি সাকিবের মত তামিমকে ছুটি দেবেন কিনা সেটা এখন সময়ের ব্যাপার। গুন্জন আছে বাংলাদেশের ওয়ান ডে অধিনায়ক মাশরাফিও টি টুয়েন্টি থেকে বিশ্রাম নিতে পারেন । দলের এমন ঘটনার পেছনে সিনিয়র খেলোয়াড়দের উপকোন্দল আর হেড কোচের সঙ্গে খেলোয়াড়দের দূরত্বই বড় কারণ বলে মনে করছেন বাংলাদেশের ক্রিকেট সংশিষ্টদের অনেকেই।

অন্যদিকে খালেদ মাহমুদ সুজন ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন। বিসিবি বিকল্প ম্যানেজার হিসেবে মিনহাজুল আবেদিন নান্নুকে দলের সঙ্গে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিসিবি‘র সিইও নিজামউদ্দিন সুজন তাদের সিদ্ধান্তের কথা নান্নুকে জানিয়ে দিয়েছেন।

ছবিঃ গুগল