কুসুম শিকদারের বিরুদ্ধে পর্ণোগ্রাফির মামলা

অভিনেত্রী কুসুম শিকদারসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খন্দকার নাজমুল আহসান আজ দুপুরে মিউজিক ভিডিওর নামে পর্ণগ্রাফি তৈরী করার অভিযোগে এই মামলাটি দায়ের করেন।মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট নুরুন্নাহার ইয়াসমিনের আদলত এই মামলাটি গ্রহণ করে রমনা থানাকে অভিযোগ তদন্তে নির্দেশ দেন।

গত ৩ আগস্ট ‘বঙ্গ’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানের ইউটিউব চ্যানেল ‘বঙ্গবিডি’ এর ব্যানারে ‘নেশা’ নামে একটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করা হয়। ভিডিওটিতে অভিনেত্রী কুসুম শিকদারের খোলামেলা ও আবেদনময় উপস্থিতি নিয়ে গণমাধ্যম ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। এরপর গানটির বৈধ-অবৈধ ভিডিও ও টিজার ইউটিউব থেকে সরিয়ে ফেলার জন্য বাদী পক্ষের আইনজীবী আফতাব উদ্দিন ছিদ্দিক রাগিব আইনি নোটিশ দেন। তারপরেও গানটি প্রত্যাহার করা না-হলে আজ পর্ণোগ্রাফি আইন ২০১২-এর ৮ ধারায় মামলাটি করা হয়।

মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, মূল গানটি বিচ্ছেদমূলক। তাতে প্রিয়জন হারানোর বেদনা প্রকাশ পেয়েছে। অথচ দৃশ্যায়নে অপ্রাসঙ্গকভাবে জুড়ে দেয়া হয়েছে একের পর এক আপত্তিকর যৌন উত্তেজক এবং অশ্লীল দৃশ্য। গানটিকে দ্রুত জনপ্রিয় করার সহজ রাস্তা হিসেবে কাটপিসের মতো এসব দৃশ্য সংযোজন করা হয়েছে। এমনকি ভিডিওটির কভার ছবিও অত্যন্ত অশ্লীল এবং অরুচিকর। এ ধরণের যৌন উত্তেজক, কাটপিস স্টাইল মিউজিক ভিডিও কেবল মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি নয় গোটা সমাজ, পরিবার ও রাষ্ট্রের জন্যও অশনি সংকেত।

মামলায় গানটির গায়িকা ও মডেল কুসুম শিকদার ছাড়াও সহ-মডেল খালেদ হোসাইন সুজন, ভিডিওর পরিচালক শুভ্র খান ও শ্রাবণীএবং ভিডিও প্রকাশক প্রতিষ্ঠান ‘বঙ্গ’-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ কয়েকজনকে আসামী করা হয়।

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

তথ্যসূত্র ও ছবিঃ ইন্টারনেট