এবার আহত মুশফিকঃ সংকটে দল

আহসান শামীমঃ পায়ের গোড়ালি মচকে ওয়ানডে সিরিজ থেকেই ছিটকে পড়েছেন বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। উরুর পেশিতে টান পড়ায় দ্বিতীয় টেস্ট ও প্রথম ওয়ানডে খেলেননি তামিম ইকবাল।এবার নতুন করে ইনজুরির খাতায় নাম লেখালেন প্রথম ওয়ানডের হার না মানা সেঞ্চুরিয়ান মুশফিকুর রহিম। কিম্বার্লিতে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে ব্যাটিংয়ের সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়েছেন টেস্ট অধিনায়ক।যদিও বাংলাদেশ দলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করা মিনহাজুর আবেদিন নান্নুর মতে, “মুশফিকের ইনজুরি খুব একটা গুরুতর নয়।” এরপর হঠাৎ করে বাংলাদেশের কিছু গনমাধ্যমের খবর দলের অধিনায়ক মাশরাফিও ইনজুরিতে আক্রান্ত। বোল্যান্ড পার্কে আগামীকাল বুধবার খেলতে পারবেন না তিনি। যদিও এই ব্যপারে বাংলাদেশ দলের নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু জানালেন ‘আপনাদের কাছ থেকে এই মাত্র শুনলাম মাশরাফি ইনজুরিতে, এখন পর্যন্ত ও আছে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের পারফরম্যান্স এখন ভালো হচ্ছে না। দলকে আপনারা আরও সাহস দেবেন। এর মধ্যে যদি গুজব রটে, তা হলে বিষয়টা আরও খারাপের দিকে যাবে।’

তবে নান্নু জানান, ব্যপারটা নিয়ে তিনি মাশরাফির সঙ্গে একান্তভাবে কথা বলবেন। সে যদি আসলেই ইনজুরিতে পড়ে তাহলে তাকে নিয়ে ম্যানেজমেন্ট কোনো ঝুঁকি নেবে না।

প্রথম ওয়ান ডে’র আগে তামিম মাঠে নামবেন এমন দৃঢ় প্রত্যয়ের কথা বলেছিলেন নিজেই। বেসরকারী এক টেলিভিশন সূত্রে জানা যায়, ম্যাচ খেলতে তামিমের সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত হওয়ার পর হঠাৎ তাঁর সাথে হেড কোচ হাতুড়াসিংহের বাদানুবাদ থেকে একপর্যায় নাকি তামিম রাগে ব্যাটেও ছুঁড়ে মেরেছেন। গতকাল জাতীয় সংগীত গাওয়ার সময়েও দেখা যায়নি তামিমকে। কোন খেলোয়ার যদি ইনজুরিতেও থাকে তাহলেও তার বাধ্যবাধকতা থাকে জাতীয় সঙ্গীতে অংশগ্রহণ করায়।  

ইন্জুরির পাশাপাশি দক্ষিন আফ্রিকায় বাংলাদেশ দলের আরেক দুশ্চিন্তার নাম ‘বোলিং অ্যাটাক। অনেকটাই ধ্বসে পরেছে বোলিং স্তম্ভ। কোচ হিথ স্ট্রিক আর মাশরাফির অধিনায়কত্বে দাড়িয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশের পেস বোলিং আক্রমন। হিথ স্টিক চলে যাওয়ার পর ২০১৭ সালে এসে ছন্দ পতন ঘটে টাইগারদের।ইংল্যান্ডের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির বোলিং পারফর্মেন্স দক্ষিণ আফ্রিকাতে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচেও দেখা গেল। বাংলাদেশের দেয়া পৌনে তিনশো রানের লক্ষ্য কোন উইকেট না হারিয়ে ছাড়িয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকা।শুধু ওয়ান ডে কেন টেষ্টেও বাজে বোলিং নিয়ে খোলামেলা কথা বলে যথেষ্ট সমালোচিত হয়েছেন টেষ্ট দলের অধিনায়ক মুশফিক। সমালোচনার কোপে পড়েছেন  বাংলাদেশ দলের অন্য খেলোয়াড়রা। ওয়ান ডের আগেই গনমাধ্যমের সামনে তাদের কথা বলার ওপর শক্ত বিধিনিষেধের শর্ত চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অনেকের মতই বেশ বাংলাদেশের বোলিং পারফর্মেন্সে বেশ অবাক জাতীয় দলের সাবেক কোচ সরওয়ার ইমরান।দেশের জাতীয় দৈনিকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, “‘দুই জন বিদেশি কোচ আছেন বোলারদের দেখার জন্য কোর্টনি ওয়ালশ ও সুনীল যোশী , তারপরও যদি এমন পারফরম্যান্স হয়, সেটাই আশ্চর্য লাগছে।” এছাড়া সাম্প্রতিক সময়ে পেস বোলারদের সাফল্য স্মরণ করতে গিয়ে তিনি বলেছেন, “আমাদের বোলারদের পারফরম্যান্স তো এত খারাপ ছিল না।” শুধুই কি বোলিং , ব্যাটসম্যানরাও বা কি করছেন?

মুশফিকের মত মাশরাফির অভিযোগের আঙ্গুলও পুরোটাই হাতুড়াসিংহের ক্ষমতার দাপট, আর দল নিয়ে মাত্রারিক্ত গবেষনার দিকে। তার জেদের বলি হয়েছেন অনেক খেলোয়াড়। সম্প্রতি টি টুয়েন্টি থেকে ক্যাপটেন মাশরাফিকে সরিয়ে দেওয়া হয় তারই পরামর্শে।অধিনায়ত্ব হারিয়ে মাশরাফিও জাতীয় দলের টি টুয়েন্টিকে বিদায় জানান। এখন আবার দক্ষিন আফ্রিকার মাঠে হেড কোচ টি টুয়েন্টিতে মাশরাফিকে দলে চান। মাশরাফির সোজাসাপ্টা জবাব ওয়ান ডে শেষ করে তিনি দেশে ফিরবেন। কারো ইচ্ছার পুতুল হতে তিনি রাজী নন।

ছবিঃ গুগল