এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজি জিতে নিলো ডু প্লেসিসের দল

আহসান শামীমঃ পার্লের বোল্যান্ড পার্কে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে ১০৪ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা।সেই সাথে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজি জিতে নিলো ডু প্লেসিসের দল।

শুরুতে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার দলপতি মাশরাফী বিন মর্তুজা। সিরিজে টিকে থাকতে হলে জিততেই হবে এমন ম্যাচে গত দুই দিনের বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে শুরুতে স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ে পাঠান তিনি। ব্যাট হাতে, পার্লের বোল্যান্ড পার্কে দক্ষিণ আফ্রিকার সংগ্রহ ৩৫৩ রান।তিন বার জীবন পেয়ে এবিডি ভিলিয়ার্সের রেকর্ড ব্রেকিং ১০৪ বলে ১৭৬ রানের বিধ্বংসী ইনিংসে বড় পুঁজি  প্রোটিয়ারা।হাশিম আমলা করেন ৮৫ রান।

৩৫৪ রানের জয়ের লক্ষ্যে ভুলে ভরা খেলায়, ব্যাটিং করতে নামেন তামিম আর ইমরুল। ভালোমতোই খেলছেন তারা দুইজন। অষ্টম ওভারের চতুর্থ বল অফ স্টাম্পের বাইরে করেছিলেন ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। বল লাগে প্যাডে। আম্পায়ার দেরী না করেই দেন আউট।  টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় রিভিউ নিলে বেঁচে যেতেন তামিম। আউট হওয়ার সাথে সাথেই তামিম যান ইমরুলের কাছে জানতে আউট হয়েছেন কিনা। ইমরুল সোজা ভাষায় সংকেত দেন আউট । রিভিউ নষ্ট করার দরকার নেই। আর যখন লিটন আউট হলেন বলটা ছিল মিডল স্টাম্পে। লিটন জানতে চাইলেন ইমরুলের  কাছে আউট হয়েছি কিনা। ইমরুলের পরামর্শে রিভিউ নেওয়া হলো । আর তাতেই বাংলাদেশের নষ্ট হয়ে যায় একটা রিভিউ।অবশ্য দায়িত্বশীল ব্যাটিং করে ২২তম ওভারে নিজের ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ১৪ তম অর্ধশতক তুলে নেন ইমরুল কায়েস।সঙ্গে দীর্ঘদিনের রান খরা কাটানোর পাশাপাশি সকল সমালোচনারও জবাব দিলেন তিনি।সম্প্রতিক নিন্দিত নন্দিত বাংলাদেশ টেষ্ট অধিনায়ক মুশফিক করেন ৬০ রান।এছাড়া ব্যাটিং ব্যার্থতার খেসারতে শেষ পর্যন্ত ৪৭.৫ বল৩ ২৪৯ রানেই গুটিয়ে যায় সফরকারীরা। বাংলাদেশের পক্ষে ইমরুল কায়েস করেন সর্বোচ্চ ৬৫ রান।

প্রোটিয়াদের হয়ে আন্দাইল ফেহলুকায়ো একাই নেন ৪৪ রান দিয়ে ৪ উইকেট।অন্যদিকে ৬২ রান দিয়ে ৪ উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশের একমাত্র পেসার রুবেল। সাকিব নেন ২ উইকেট।

প্রথম ওয়ান ডে খেলায় হার না মানা সেঞ্চুরিয়ান মুশফিক হ্যামস্ট্রিং ইন্জুরীর কারনে ফিল্ডিং না করে মাঠের বাইরে থাকায় , আজ দ্বিতীয় ওয়ান ডে তে তাঁর খেলা নিয়ে সংশয় সৃষ্টি হয়। যদিও অবাক করার বিষয় মুশফিক আজ শুধু মাঠেই নামেননি উইকেট কিপিংও করেছেন । যে কারনে দলে লিটন দাসের উপস্থিতিটা কিছুটা অবাক করেছে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের।

ছবিঃ ইএসপিএন