উপন্যাসের মৃত্যু ঘটেনি – ওরান পামুক

ওরান পামুক মনে করেন না একবিংশ শতাব্দীতে এসে উপন্যাসের মৃত্যু ঘটছে। এখন মানুষ আরও অনেক বেশী নিজের ভেতরের পৃথিবীটাposterকে মেলে ধরছে উপন্যাসে। সত্তর অথবা আশির দশকে তুরস্কের তরুণ প্রজন্ম কাব্য চর্চার দিকে ঝুঁকে পড়েছিলো। কিন্তু এখন তার ভাষায় ‘ প্রায় সবাই উপন্যাস লিখছে।’

ওরান পামুকের নতুন উপন্যাস প্রকাশিত হয়েছে গেল বছরের ডিসেম্বর মাসে। উপন্যাসের নাম ‘এ স্ট্রেঞ্জনেস ইন মাই মাইন্ড’। ইস্তামবুল শহরের রাস্তার ফেরিওয়ালা একটি ছেলে এই উপন্যাসের কেন্দ্রে আছে। পামুক এই উপন্যাসে শুনিয়েছেন তার প্রিয় শহর ইস্তাম্বুলের অন্দর মহলের গল্প।

সম্প্রতি গার্ডিয়ান পত্রিকায় সঙ্গে এই উপন্যাস বিষযে কথপোকথনে পামুক উপন্যাস লেখার বিষয়ে কথা বলতে গিয়ে বলেছেন, উপন্যাস লেখার বিষয়টা তার কাছে একটা গাছকে কল্পনা করার মতো। লেখক প্রথমে গাছের গুড়ির কথা ভাবে। তারপর ভাবে কান্ড নিয়ে, ডালপালা নিয়ে। শেষে ভাবে পাতার কথা। পামুক মনে করেন একটি উপন্যাস ক্রমাগত সংশোধন আর পরিমার্রজনার মধ্যে দিয়ে বিকশিত হয়। সংগৃহীত