মুক্তি পিছিয়ে গেলো পদ্মাবতী সিনেমার

এক সিনেমা নিয়ে ভারতে এখন সাম্প্রদায়িক রাজনীতি তুঙ্গে।হুমকী দেয়া   সিনেমার নাম পদ্মাবতী। ছবিতে পদ্মাবতী চরিত্রে অভিনয়ের অপরাধে বলিউডের খ্যাতিমান অভিনেত্রী দিপীকা পাডুকনের নাক কেটে নেয়া হবে। তাকে জীবন্ত পুড়িয়ে মারার জন্য এক কোটি রুপী পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে। হাত পা ভাঙ্গার হুমকী দেয়া হয়েছে পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালীকেও।

ছবিটির শ্যুটিংয়ের সময় থেকেই শুরু হয় এই বিরোধিতা। এখন এই রাজনৈতিক হুমকীর মুখে নির্দিষ্টকালের জন্য মুক্তি পিছিয়ে গেল ‘পদ্মাবতী’ ছবিটি৷ পরিস্থিতি দেখে গত মঙ্গলবার ছবিটির নির্মাতা সংস্থা জানিয়েছে, আপাতত এই ছবি মুক্তি দেয়ার কথা তারা ভাবছেন না ৷ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ‘পদ্মাবতী’র প্রচার অভিযানও ৷ তাদের বক্তব্য, সেন্সর বোর্ড কী সিদ্ধান্ত নেয়, সেটা দেখেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে তারা ৷

অন্যদিকে ভারতের সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রসূন যোশী বলেন, ‘ছবিকে সার্টিফিকেট দেওয়ার আগে তাঁরা ‘বিশেষজ্ঞ’দের পরামর্শ নেবেন ৷ এই বিশেষজ্ঞ বলতে তিনি সম্ভবত ইতিহাসবিদদের কথাই বলতে চেয়েছেন ৷ ‘পদ্মাবতী’ নিয়ে কয়েক জন ইতিহাসবিদের সঙ্গে কথা বলতে পারে সেন্সর বোর্ড ৷ ছবি দেখিয়ে তাঁদের কাছে জানতে চাওয়া হতে পারে এতে ইতিহাসকে কোনও ভাবে বিকৃত করা হয়েছে কি না ৷

তবে ছবির পরিচালক সঞ্জয় লীলা বানশালীর বক্তব্য, তিনি ইতিহাসের বাইরে এক পাও যাননি ৷ বিশেষজ্ঞদের মত নিয়েই এই বিবাদের নিষ্পত্তি করতে চায় বোর্ড ৷ তবে এ বিষয়ে কোনও তাড়াহুড়োয় যাচ্ছে না তারা৷ বলিউড থেকে যাওয়া আবেদন খারিজ করে তারা জানিয়ে দিয়েছে, ধীরে সুস্থে ‘পদ্মাবতী’কে সার্টিফিকেট দেবে তারা৷ আর এই উত্তপ্ত পরিস্থিতি দেখেই ছবির মুক্তি আপাতত ভুলে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্মাতারা৷

‘পদ্মাবতী’ নিয়ে গরমা গরম বক্তৃতা দিয়েছেন রাজনীতিকরা৷ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেছেন, ‘যাঁরা দীপিকার নাক কেটে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন তাঁরা যদি দোষী হন এবং তাঁদের যদি শাস্তি হয়, তা হলে বনশালীরও শাস্তি হওয়া উচিত৷’ কারণ, খ্যাতনামা এই পরিচালক নাকি মানুষের ভাবাবেগ নিয়ে খেলা করাকে তাঁর স্বভাবে পরিণত করেছেন৷ যোগী অবশ্য এর আগেই কেন্দ্রকে চিঠি লিখে এই ছবির মুক্তি পিছিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেছিলেন। কারণ ‘পদ্মাবতী’ মুক্তি পেলে তাঁর রাজ্যে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমস্যা তৈরি হতে পারে৷ তবে ‘শান্তিরক্ষা’র এই লড়াইয়ে যোগী একা নন, তাঁর পাশে রয়েছে রাজস্থান এবং মধ্যপ্রদেশের মতো রাজ্যও যেখানে তাঁর দলেরই সরকার রয়েছে৷ রাজনীতির গণ্ডি পার পরে পাশে দাঁড়িয়েছেন কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংও৷

পরিস্থিতি এমন জায়গায় পৌঁছেছে যে ২৪ ঘণ্টা আগে দলের কাছ থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাওয়া হরিয়ানার বিজেপি নেতা এ দিন দেশের সমস্ত সিনেমা হলে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে দিয়েছেন! তবে ঘুরপথে৷ তাঁর কথায়, ‘এমন কাজ করার মতো সাহস এ দেশের লড়াকু যুবসমাজের আছে৷’ যার জেরে এ দিন ‘পদ্মাবতী ’র নায়িকা দীপিকার বাড়ির নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে ৷তবে, ‘পদ্মাবতী’র পাশে এসেও দাঁড়িয়েছে মানুষ এই বিপদের সময়। শাহরুখ খান, আমির খানের পর এবার দক্ষিণী সুপারস্টার কমল হাসান যুক্ত হলেন সেই তালিকায়৷ কমল হাসান তার টুইটারে লিখেছেন, ‘আমিও দীপিকার মাথা চাই, তবে বাঁচানোর জন্য ৷ ওঁর শরীরের থেকেও ওটাকেই আমি বেশি সম্মান করি৷’

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ এই সময়

ছবিঃ গুগল