পানিফলঃ অ্যান্টি ক্যানসার

আপেল, কমলালেবুর মতো প্রথম সারির ফল নয়। ফল রসিকদের কাছে খুব একটা আদরেরও নয়। কিন্তু তাই বলে মোটেও হেলাফেলা করা যায় না পানিফলকে। আর পানিফল তো আমাদের অতি চেনা একটি ফল। পেটের রোগ থেকে ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ, সব কাজের কাজী এই পানিফল। গবেষণা এমনটাই বলছে। জানা গেছে, এতে রয়েছে ক্যানসার প্রতিরোধক গুণও।

১০০ গ্রাম পানিফলে  ৪৮.২ গ্রাম পানি থাকে। প্রোটিন থাকে ৩.৪ গ্রাম। কার্বোহাইড্রেডের পরিমাণ ৩২.১ গ্রাম। আর ফ্যাট থাকে মাত্র  ০.২ গ্রাম।  এ ছাড়াও পানিফলে আছে ক্যালসিয়াম, জিঙ্ক, আয়রন, সোডিয়াম, পটাশিয়াম। শরীর ঠাণ্ডা করতে পানিফলের জুড়ি নেই। শরীর থেকে টক্সিন দূর করতে দারুণ কাজ দেয় পানিফল।

অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টে ভরপুর পানিফল। অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল, অ্যান্টি ভাইরাল গুণ রয়েছে এই ফলের। এমনকি অ্যান্টিক্যানসার হিসেবেও কাজ করে পানিফল। বমিভাব, হজমের সমস্যা দূর করতে পানিফলের জুড়ি নেই। অনিদ্রার রোগীদের ক্ষেত্রেও নিয়মিত পানিফল খাওয়া উচিত বলে অভিমত দিয়েছেন ডাক্তাররা। পানিফল ঠাণ্ডালাগা, সর্দিতেও স্বস্তি দিতে পারে। ব্রঙ্কাইটিস, অ্যানিমিয়া কমাতে পারে।

ডাক্তাররা বলছেন, পটাশিয়াম থাকায় রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে ভাল কাজ করবে এই ফল। ত্বক উজ্জ্বল আর সতেজ রাখতেও পানিফল অনবদ্য। পটাশিয়াম, জিঙ্ক, ভিটামিন B, ভিটামিন E ভরপুর পানিফল চুলও ভালো রাখে।

স্বাস্থ্য ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

ছবিঃ সংগ্রহ