জিতল বাংলাদেশ

আহসান শামীমঃ সিদ্ধান্তটা তাহলে বাংলাদেশের জন্য খারাপ হয়নি। স্পিনার তাইজুল ইসলামের বদলে মোশাররফ হোসেনকে খেলানোর সুফল পেলো বাংলাদেশ। আফগান শিবিরে জোড়া আঘাত হানলেন ৮ বছর পর জাতীয় দলে ফেরা স্পিনার মোশাররফ হোসেন রুবেল। ক্রমেই বিপদজ্জনক হয়ে ওঠা ওপেনার নওরোজ মঙ্গলকে লেগ বিফোরের ফাঁদে ফেলার পর ওই ওভারেই হাসমত উল্লাহকে আউট করেন তিনি।অবশ্য প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন অধিনায় মাশরাফি। আফগানিস্তান পাঁচ রান তুলতেই ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদকে ক্লিন বোল্ড করে সাজঘরে পাঠান তিনি।
টসে জিতে ব্যাটিং এর সিদ্ধান্ত নেওয়া বাংলাদেশ দলের শুরুটা সুবিধার ছিল না । ধারাবাহিক ভাবে অফ ফর্মে থাকা সৌম্য সরকার আউট হয়ে গেলে তামিমের সাথে দারুণ একটা পার্টনারশীপ গড়ে তোলেন সাব্বির। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত পরবর্তীতে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ছাড়া অন্যান্য ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় তিনশো রানে পৌছাতে পারেননি বাংলাদেশে।
টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ২৭৯ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ।দলের পক্ষে তামিম সর্বোচ্চ ১১৮ রান করেন। এছাড়া সাব্বির ৬৫ ও রিয়াদ ৩২ রান করেন।
খেলা চলাকালে নিরাপত্তারক্ষীদের চোখে ফাঁকি দিয়ে হঠাৎ দৌঁড়ে মাঠে ঢুকে পড়েন এক দর্শক ।
তখন ২৮ দশমিক ২ ওভারের খেলা চলছিল। বল করছিলেন পেসার তাসকিন আহমেদ। ঠিক সেসময় মাঠে ঢোকেন ওই ভক্ত।
নিরাপত্তকর্মীরা সঙ্গে সঙ্গে মাঠে ঢুকে ভক্তকে আটক করার চেষ্টা করেন। তবে মাশরাফি তাকে জড়িয়ে ধরে নিরাপত্তাকর্মীদের হাত থেকে রক্ষা করেন। পরে নিরাপত্তাকর্মীরা ওই ভক্তকে মাঠ থেকে বাইরে নিয়ে যান । অবশ্য কোন অঘটন না ঘটলেও এই ঘটনায় নিরাপত্তা ব্যবস্থার যথেষ্ট ত্রুটির ধরা পরেছে । খেলায় ম্যান অব দ্য ম্যাচ ও সিরিজের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন বাংলাদেশের তামিম ইকবাল |