আফসোসের হার বাংলাদেশের

আহসান শামীমঃ ক্যাচ মিস, ব্যাটিং ব্যর্থতা তাড়া করলো টাইগারদের। সাকিব আর ইমরুল ঘুরে দাঁড়িয়েছিলেন ঠিকই কিন্তু শেষ রক্ষা হলো না। খেলার অন্তিমলগ্নে ইংল্যান্ড দলের বোলারদের ছোবলে জয় অধরাই রয়ে গেল মিরপুরে। হাতের কাছে এসেও জয়ের স্বপ্ন ভেঙ্গে গেল।
দীর্ঘদিন ধরেই মুল একাদশে জায়গা না পাওয়া ইমরুলের শতরান আর সাকিবের ঝড়ো ব্যাটিং জয়ের স্বপ্ন দেখিয়েছিল টাইগারদের। সাকিব আউট হয়ে গেলে মাত্র দুই ওভারে টাইগারদের ৩ উইকেট দ্রুত পরে গেল অধরা থেকে গেল বাংলাদেশের সহজ জয়টা । ইংল্যান্ডের জাতীয় দলে অভিষিক্ত বোলার ৫ উইকেট নিয়ে দলকে পরাজয়ের গ্লানি থেকে রক্ষা করেন । টাইগাররা ইমরুল কায়েস আর সাকিব ছাড়া কেউই ৩০ রানও স্পর্শ করতে পারেনি ।
সহজ ডটকম থেকে সহজ ছিলো না টিকিট সংগ্রহ । পাঁচ মিনিটে সব টিকিট শেষ । নিরাপত্তা ব্যবস্থার কড়াকড়ি । দর্শকদের খেলার মাঠে পৌঁছতে ভোগান্তির কমতি ছিল না । টসে জিতে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ফিল্ডিং করতে পাঠান বাংলাদেশের টাইগারদের । সকাল থেকেই বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিলেও দুপুরের কড়া রোদ। খেলা বিঘ্নিত হওয়ার সম্ভাবনা কমে যায় । ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে এইভাবেই মাঠে গড়লো। সিরিজ শুরুর আগের পরিসংখ্যান ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ চার ওয়ানডেতে তিন জয় ।
ব্যাট হাতে শুরুতে ৬৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পরে যায় ইংল্যান্ড ।স্টক্স আর ডাকেটের শক্ত জুটিতে ১৫৩ রান পেয়ে খেলায় ঘুরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ড । স্টক্স দুই বার লাইফ পেয়ে প্রথম বারের মতো ইংল্যান্ডের হয়ে ১০১ রান করেন ।বোলিং আর গ্রাউন্ড ফিল্ডিং ভালো হলেও একের পর এক ক্যাচ মিস করেছে টাইগাররা। অভিষিক্ত ডাকেট আউট হন ৬০ রান করে।