চোখ যে মনের কথা বলে

রূপের জৌলুস বিচ্ছুরিত হয় চোখ থেকে।এক জোড়া ত্রুটিযুক্ত চোখ অতি বর সুন্দরীর রূপেও গ্রহন লাগায়। তাই চোখের যত্ন নেওয়াটা খুবই জরূরী।make_up-1
• চোখের কোনে বলিরেখা বা ক্রোজ ফিট: অতিরিক্ত হাসি, চোখ কুঁচকে কথা বলা এসব কারণে চোখের কোনে কাকের পায়ের ছাপের মতো বলিরেখা দেখা যায়।এটি রুখতে যে কোন ঘন ক্রিম বা আই ক্রিম লাগানো জরুরী।এতে ওই জায়গার ত্বক ফুলে থাকে ও বলিরেখা গুলি মিলিয়ে যায়।যাদের এই ধরনের বলিরেখা পড়ার প্রবণতা থাকে তারা সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করুন রোদে বেরুবার সময়। চোখের চারপাশের নরম ত্বক ঢাকুন সানগ্লাসে।চর্মরোগ বিশেষজ্ঞের সঙ্গে যোগাযোগ করে থেরাপি করালেও এই সমস্যার হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন।
• চোখের চারপাশে কারো দাগ: চোখের কোলে কালো দাগ হওয়ার দুটি কারণ। প্রথমত, অতিরিক্ত মেলানিন জমার জন্য, তা সে দু:শ্চিন্তা, ক্লান্তি,গর্ভাবস্থা যে কোন কারণেই হোক না কেন এ ক্ষেত্রে ত্বক বিশেষজ্ঞেরপরামর্শ নিয়ে ওই অংশের ব্লিচ করলে উপকার পাবেন।দ্বিতীয়ত বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ত্বক পাতলা হতে আরম্ভ করে।তাই অনেক সময় চোখের নীচের ত্বক স্বচ্ছ হয়ে শিরা উপশিরা দেখা যায়।এক্ষেত্রে ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিযে এমন কোন ওষুধ ব্যবহার করুন যা ম্যাসেজ করতে পারেন।
• চোখের কোলে ফোলা ভাব: অতিরিক্ত লবন খাওয়া,মদ্যপান, ক্রমাগত ঘুম না হওয়া ইত্যাদী কারনে চোখের কোল ফোলে।ঘরোয়া রূপ-চিকিৎসা পদ্ধতি হিসাবে শশার টুকরা বা ভেজা টি-ব্যাগ রাখতে পারেন চোখের উপরে।রেখে চোখ বুজে শুয়ে থাকুন ১০ মিনিট। এতে ফোলা ভাব কমবে।যাদের চোখোর কোল ফোলার প্রবনতা আছে তাদের বলি সব সময় বালিশ উচু করে শোবেন যাতে বডি ফ্লুয়িড গোড়ালির দিকে নেমে যায়।মাথার দিকে য়েতে না পারে।
• প্রসাধনের পরামর্শ: চোখের চারপাশের কালো দাগ মুছুন ক্রিম বেসড ফাউন্ডেশন দিয়ে।ত্বকের রঙের চাইতে এক শেড হালকা রঙ ব্যবহার করবেন।বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায় মহিলারা সাদা বা ফ্যাকাশে রঙের শেড ব্যবহার করেন যা প্রকারন্তে হাইলাইটার-এর কাজ করে বলে চোখের চারপাশ ফোলা দেখায়।
• ধূসর বা কালো আইশ্যাডো ব্যবহার করবেন না, যদি চোখের চারপাশে কালি থাকে।সে ক্ষেত্রে বেজ বা ব্রাউন আইশ্যাডো লাগান।
• চোখোর চারপাশে কখনো পাউডার লাগাবেন না।তাতে মেকআপ উঠে গেছে এমন মনে হতে পারে।
• চোখের পাতা শুকনো দেখালে ফ্রস্টেড শেড লাগাবেন না।