শুভ জন্মদিন হ্যাপী আকন্দ

happy11হ্যাপী আকন্দ। বাংলাদেশের গানের পৃথিবীতে এক আগন্তুক পাখি। একদিন উড়ে এসে বসেছিলেন গানের ঝর্ণাতলায়। সামান্য সময় কাটিয়ে হয়তো আর ভালো লাগেনি বলে আবার উড়ে গিয়ে বসেছেন দূরে কোথাও, অদৃশ্যে, গভীর আড়ালে। অস্থির পাখিরা তো কখনো কূলায় ফেরে না। হ্যাপি আকন্দও চলে গেছেন না ফেরার দেশে মাত্র ২৭ বছর বয়সে। পেছনে রেখে গেছেন তাঁর সেই বিখ্যাত গানগুলো-‘আবার এলো যে সন্ধ্যা’, ‘খোলা আকাশের মতো তোমাকে হৃদয় দিয়েছি’,‘পলাতক সময়ের হাত ধরে’ অথবা ‘তুমি আমার প্রথম প্রেমের গান’।

আজ বাংলাদেশের এই ক্ষণজন্মা গায়কের জন্মদিন। অকালপ্রয়াত এই শিল্পীর স্মৃতির উদ্দেশ্যে প্রাণের বাংলার গভীর শ্রদ্ধা।

দেশ স্বাধীন হওয়ার পর গানের জগতে হ্যাপী আকন্দের আবির্ভাব ঘটে তাঁর অগ্রজ বাংলাদেশের বিশিষ্ট  সুরকার ও সঙ্গীতশিল্পী লাকি আকন্দের হাত ধরে। তখন হ্যাপী আকন্দের সেই গান ‘আবার এওেলা যে সন্ধ্যা’ বাংলাদেশের গানের শ্রোতাদের হৃদয়কে আলোড়িত করেছিল। এই গান আজও আমাদের মনের মধ্যে গুনগুন  করে ফেরে। স্মৃতির পর্দা সরিয়ে ফিরিয়ে আসে সেই হাসিমাখা মুখের মানুষটিকে।

হ্যাপী আকন্দ বাংলাদেশের ব্যান্ড সঙ্গীতের একেবারে সূচনা পর্বের গায়ক। এক সময়ে প্রায় অমর হয়ে যাওয়া কিছু গানের সুরও তিনি করেছেন। শিল্পী ফেরদৌস ওয়াহিদের গান ‘এমন একটা মা দে না’, কুমার বিশ্বজিতের গাওয়া ‘তোরে পুতুলের মতো করে সাজিয়ে’ সেইসব গানের মধ্যে অন্যতম।