আগামীকাল শুরু হচ্ছে সাদা পোশাকের ক্রিকেট লড়াই

আহসান শামীমঃ আগামীকাল  বৃহস্পতিবার ২০,  অক্টোবর। সাদা পোশাকের ক্রিকেট লড়াইয়ে মাঠে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ইতিমধ্যেই সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন,  “দীর্ঘদিন টেস্ট খেলা থেকে বাইরে থাকা বাংলাদেশের জয়ের সম্ভাবনা কম”। যদিও তিনি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ খেলার স্বপ্ন দেখছেন।বাংলাদেশের হেড কোচ হাথুরুসিংহের বক্তব্য মোটামুটি একই রকম । তবে ইংলিশদের বিপক্ষে তিনি টাইগারদের  ভালো ব্যাটিং দেখার অপেক্ষায় । বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা আল রাউন্ডার সাকিব কিছুটা ভিন্ন মত পোষণ করেন। সাকিবের মতে, ‘ দীর্ঘদিন বাংলাদেশ ক্রিকেটাররা টেস্ট ক্রিকেটের বাইরে থাকলেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের সক্ষমতা আছে বাংলাদেশের । প্রয়োজন টাইগার খেলোয়াড়দের ধৈর্য্য আর শক্ত মানসিক শক্তির। টাইগারদের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম দারুণ ভাবে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন জয়ের ব্যাপারে ।
কার্তিকের গরম আর টাইগার স্পিনের  জন্য ইংলিশদের অধিনায়ক কুক কিছুটা অস্বস্তিতে আছেন ।ইতোমধ্যেই কুক দ্বিতীয় সন্তানের জনক  হয়েছেন । সফরে মাঝখানেই  দুদিনের জন্য ইংল্যান্ড ঘুরে এসেছেন ।

চৌদ্দ মাস পরে বাংলাদেশের টাইগারা মাঠে নামলেও ইংলিশ অধিনায়ক কুক যথেষ্ট সমীহ করে দেখছেন টাইগারদের । যদিও ইংলিশদের বিপক্ষে আট টেস্টে বাংলাদেশের জয় নেই একটাও। তিনটা ড্র আর পাঁচটা পরাজয়ের পরিসংখ্যান কি পরিবর্তন করতে পারবে বাংলাদেশ ? প্রশ্নটা ঘুরে ফিরে ক্রিকেট বোদ্ধাদের ।
চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের প্রথম টেস্ট শুরু হবে আগামীকাল  সকাল ন’টায়।চার জন নতুন খেলোয়াড় টেস্ট একাদশে থাকলেও সম্ভাবনা আছে তিনজনের অভিষেক হওয়ার। সেক্ষেত্রে সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, আর পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বি’র খেলার সসম্ভাবনা বেশি ।
টেস্ট সিরিজের বাংলাদেশের বিপক্ষে দুটো জয় পেলে ইংলিশরা টেস্ট র‌্যাঙ্কিং এ অস্ট্রেলিয়াকে নীচে ফেলে উপরে উঠে যাবে। অবশ্য এক খেলায় জিতলে মাত্র এক পয়েন্ট সংগ্রহ হবে ইংলিশদের ঝুড়িতে ।অন্যদিকে টেস্ট সিরিজ বাংলাদেশ জিতলে বাংলাদেশ পয়েন্ট টেবিলে দশ নম্বর স্থান থেকে আট নম্বর স্থানে পৌঁছে যাবে।
বাংলাদেশ স্কোয়াড : মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল (সহ-অধিনায়ক), সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শুভাগত হোম, সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, কামরুল ইসলাম রাব্বি ও নুরুল হাসান সোহান।