আজ কি হবে কে জানে…

আহসান শামীমঃ  তামিমের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ হয়ে তাঁর গুণগান করলেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলী।
ঢাকা টেস্টের  দিন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মঈন আলী বলেন, ‘আমি মনে করছি আমরা এখনও ঠিক জায়গায় আছি। তামিম দুর্দান্ত ব্যাট করেছে, আমি মুগ্ধ। ও সব অবস্থায় নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে। যদিও আজ সব বোলারকেই খেলেছে। তারপরও কঠিন অবস্থা থেকে আমরা ফিরে এসেছি।
তিন উইকেট হারিয়ে কিছুটা পিছিয়ে পড়েছি এমনটি উল্লেখ করে মঈন আলী বলেন, ‘আবারও ভালো একটা লড়াই উপভোগ করলাম। prv_ab273_1477634594
ইংলিশ আল রাউন্ডার বাংলাদেশের জামাই খ্যাত মইন আলির বলেন, “তারপরও সবমিলে চিন্তা করলে আমরা বোলিং ভালো করেছি। যেখানে ১৭০ পর্যন্ত এক উইকেট ছিল। আর শেষ দিকে ২২০ রানেই অলআউট। সত্যিই দারুণ একটা দিন শেষ হল।’ ১৭০ রানেও ছিল এক উইকেট। তারপর ১৭১ থেকে ২২০ এই ৪৯ রানের মধ্যে বাংলাদেশ হারিয়েছে ৯ উইকেট।”
অন্যদিকে  দলের এই ব্যাটিং বিপর্যয়ের জন্য ব্যাটসম্যানদেরই দুষছেন বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবাল।
ইংলিশদের বিপক্ষে নিজের তৃতীয় শতক হাঁকালেন তামিম ইকবাল। তবে তাঁর এই সেঞ্চুরির পরেও বাংলাদেশ বড় ইনিংস গড়তে ব্যর্থ হয়। প্রথম দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে তামিম আক্ষেপ নিয়ে বলেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি, যেভাবে আমাদের ৯ জন ব্যাটসম্যান আউট হয়েছে, এর উত্তর আমার কাছে নেই। আমাদের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে আউট হয়েছে, এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। আমাদের আরো সতর্ক হয়ে খেলা উচিত ছিল।’
বাংলাদেশ দলের সহ-অধিনায়ক বলেন, ‘আমাদের ব্যাটসম্যানরা ব্যর্থ হয়েছে, এটা অস্বীকার করার উপায় নেই। তবে প্রতিপক্ষ দলও ভালো বল করেছে। আমাদের কিছু ভুল ছিল বলেই বড় সংগ্রহ গড়া সম্ভব হয়নি।’
আরো ১০০ রান যোগ করতে পারলে ভালো হতো বলে মনে করেন বাংলাদেশ ওপেনার, ‘যেভাবে আমার শুরু করেছিলাম, সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে ভালোই হতো।
ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন আলী আর তামিমের সাথে দ্বিমত পোষণ করছেন না কেউ। তারপরও ইংলিশ অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুকের কপালের ভাঁজ বেশী। কুকের ভয়ের জায়গা টাইগারদের স্পিন ঘূর্ণিতে। তাছাড়াও  চট্টগ্রামের লাল মাটির পীচ ছেড়ে ঢাকার সাদা মাটির পীচের আচরণ। টার্নিং উইকেটে ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা নিজেদের কতটা সফল হতে পারবে সেটাই দেখার বিষয় । যদিও ইংলিশ একদশে দশ জন খেলোয়াড় আল রাউন্ডার । অবশ্য ইংলিশদের ইনিংস লিডটা এই ইনিংসেই নিতে হবে । খেলা যতই দিন গড়াবে স্পিন বোলিংয়ের ঘূর্ণিতে ব্যাটিং ততই কঠিন হয়ে যাবে । বাংলাদেশ স্কোয়াডে চারজন স্পেশাল স্পিনার সমৃদ্ধ । বৃষ্টি কিছুটা হলেও ইংলিশদের অনুপ্রাণিত করছে । এরকম কন্ডিশনে ইংলিশরা খেলে অভ্যস্ত।  ভয়টা সেখানেই টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমের । বড়ো রানের সুযোগ আজ হাতছাড়া হয়ে যাওয়ার পর থেকে বিব্রতকর অবস্থায় আছেন মুশফিকুর ।