নাসির আউটঃ দল ঘোষণা

আহসান শামীমঃ বৃষ্টির কাছে আত্মসমর্পণ করতে বাধ্য হলো বিপিএল ।পুরোনো সূচীতে খেলার নতুন উদ্বোধন ৯ নভেম্বর। বাংলাদেশ দল দুই ভাগে অস্ট্রেলিয়ায় যাচ্ছে আগামী ৯ ও ১০ ডিসেম্বর। তাই বিপিএলের আসর শেষ হবে ৮ ডিসেম্বর । পূর্ব নির্ধারিত সূচী অনুসারে উদ্বোধনী পরিত্যক্ত খেলা দলগুলো রাজী হলে বিপিএলের ডে অফ অথবা কোন কোন দিন তিনটা করে খেলার মাঝে পুষিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে । অবশ্য দলগুলো রাজী না হলে ১ পয়েন্ট নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হবে পরিত্যক্ত খেলার দলগুলোকে।
অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে দশ দিনের প্রস্তুতিমূলক ক্যাম্প আর নিউজিল্যান্ড সফরটা কেন্দ্র করে বিপিএল কমিটির এমন সিদ্ধান্ত ।
শুক্রবার ২২ সদস্যের স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দলে চমক হিসেবে থাকছেন লেগ স্পিনার তানভীর হায়দার, পেসার এবাদত হোসেন ও অলরাউন্ডার নাজমুল হোসেন শান্ত। অলরাউন্ডার নাসির হোসেন স্ট্যান্ড বাই খেলোয়াড়দের তালিকায় । দীর্ঘদিন পর মুল একাদশ থেকে নাসিরের ফর্মে থাকা অবস্থায় দলে জায়গা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ ক্রিকেট টাইগার ভক্তরা । দলে নেই রুবেল, আল আমিন। nasir-hossain-bangladesh
দেশের বাইরে অন্তত ৫টা বা এর বেশি টেস্ট খেলেছে এমন ক্রিকেটারদের ভেতর নাসিরের ব্যাটিং এভারেজ তৃতীয় সর্বোচ্চ। বিদেশের মাটিতে ৬টা টেস্ট খেলে নাসিরের এভারেজ ৩৪.৬০ । দেশের বাইরে অন্তত ১০টা বা এর বেশি ওয়ানডে খেলেছে এমন ক্রিকেটারদের মধ্যে নাসিরের ব্যাটিং এভারেজ সবচেয়ে বেশি, ১৬টা ওয়ানডে খেলে ৪৪.৮০ ।দেশের বাইরে মোট ৩৫ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন নাসির। যেখানে এভারেজ ৩৩.৫১। যা বাংলাদেশের হয়ে অন্তত ১০টার বেশি ম্যাচ দেশের বাইরে খেলেছে এমন ক্রিকেটারদের ভেতর সবার সেরা । নাসিরকে বাইরে রাখার কারণ ব্যাখ্যা করেন প্রধান নির্বাচক “একই পজিশনের জন্য বেশ কজন ক্রিকেটার আছে। ছয়-সাত নম্বর জায়গায়টায় ওয়ানডেতে এখন আমাদের মোসাদ্দেক এসে গেছে। টেস্টে সাব্বির ভালো শুরু করেছে। তার পর শুভাগতও আছে, নাসিরের চেয়ে ওর স্পিন ভালো। তাহলে দেখুন, নাসির এখানে চার নম্বরে চলে গেছে।”
“এর বাইরেও সৌম্য আছে। নিউ জিল্যান্ডের জন্য ওকে আমরা অলরাউন্ডার হিসেবে ভাবছি। হয়ত নীচে ব্যাট করাতে পারি। সব মিলিয়ে নাসিরকে রাখা যায়নি। একই জায়গার জন্য এত জনকে রাখতে চাইনি আমরা।শুভাগতকে অফ স্পিনার হিসেবেই বিবেচনা করছি। বড় দৈর্ঘ্যের ম্যাচে নাসিরের চেয়ে শুভাগতর বোলিং আরও কার্যকর। নির্বাচকরা মনে করছেন, নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে নাসির ব্যাট হাতে খুব বেশী এগুতে পারবেন না। সৌম্য আবার এই ধরনের উইকেটে ভালো ব্যাট করে।”
সাব্বির ও মোসাদ্দেকের ব্যপারটা বোধগম্য হলেও নাসিরকে বাইরে রেখে শুভাগতকে রাখার ব্যাপারটি দুর্বোধ্য অনেকের কাছেই। ৮ টেস্ট খেলে ফেললেও এখনও কার্যকর কিছু করতে পারেননি শুভাগত। ৬৩.২৫ গড়ে উইকেট মাত্র ৮টা। একটি অর্ধশতকে ২৪৪ রান করেছেন ২২.১৮ গড়ে।
ইংলিশদের বিপক্ষে চট্টগ্রামে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে বল হাতে দারুণ পারফরম্যান্স করেন তানভির। ওই ম্যাচে ১৪ ওভার বল করে ৫৩ রান দিয়ে তানভীর হায়দার নেন চারটা উইকেট। তাঁর বোলিং ইকোনোমি রেট ছিল ৩.৭৮। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত ৪৭ ম্যাচে ৮৪ উইকেটে নিয়েছেন তানভির। এছাড়া ৪৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচে ৬ সেঞ্চুরিতে ২ হাজার ২০৯ রান করেছেন তিনি।
রবি ফাস্ট বোলার হান্ট থেকে উঠে আসা এবাদত হোসেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ বল করেছেন। এদিকে যুব ওয়ানডেতে সবচেয়ে বেশি রান করেছেন শান্ত। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও ১২ ম্যাচে ২ সেঞ্চুরিতে ৭৫৫ রান করেছেন ৩৭.৭৫ গড়ে। এবাদতের আগে বাংলাদেশ দলের কোন ক্রিকেটার মনে হয় এতটা সৌভাগ্য নিয়ে দলে আসেনি। নিউজিল্যান্ড সিরিজের প্রাথমিক দলে ডাক পেলেন তাও আবার তিন অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেন, আল আমিন হোসেন ও কামরুল ইসলামকে টপকে। এরপর আবার অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে বোলিং করার সুযোগও মিলেছিলো। এবাদত সৌভাগ্যের খুব দ্রুতই দুঃসংবাদে পরিণত হয় । পেশিতে চোট পাওয়ায় প্রাথমিক ক্যাম্পে থাকতে পারছেন না তিনি।
moshtafizনিউজিল্যান্ড সফরের জন্য ২২ জনের দল ঘোষণা করেছে বিসিবি। সেখানে আছেন ইবাদত। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দুটি অনুশীলন ম্যাচে তাঁর বোলিং মুগ্ধ করেছে সবাইকে। এরপর আবার অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনে বোলিং করার সুযোগও মিলেছিল। গত ২৩ অক্টোবর অনুশীলনে বোলিং করতে গিয়ে পেশিতে চোট পেয়েছিলেন তিনি। দলের ফিজিও বায়েজীদ ইসলাম জানিয়েছেন, ‘সে যে চোট পেয়েছে, সেটা গ্রেড-টু পর্যায়ের। সেরে উঠতে ৩ থেকে ৪ সপ্তাহ সময় লাগবে।’
ফলে অস্ট্রেলিয়ায় প্রস্তুতি ক্যাম্পে ইবাদতের যাওয়া হচ্ছে না। যদিও তাঁর বদলি হিসেবে কারও নাম এখনো ঘোষণা হয়নি।অবশ্য সুখবর কাটার মাষ্টার মুস্তাফিজ দ্রুত সুস্থ হয়ে নেট প্র্যাকটিস শুরু করেছেন। প্রথম দিনে নেটে ৬ ওভার বল করেছেন ।
২৬ ডিসেম্বর শুরু হবে ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। নিউজিল্যান্ড সফরে ৩টা টি-টোয়েন্টি ও ২টা টেস্টও খেলবে বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডের কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে নিউজিল্যান্ড সিরিজের পূর্বে সিডনিতে কয়েকদিনের ক্যাম্প করবে বাংলাদেশ দল। ক্যাম্প চলাকালীন বিগ ব্যাশ টুর্নামেন্টের গত আসরের চ্যাম্পিয়ন সিডনি থান্ডারের বিপক্ষে দুইটি ম্যাচ হবে ১৪ ও ১৬ ডিসেম্বর।
সিডনির বিপক্ষে দুইটি প্রস্তুতি ম্যাচ ও নিউজিল্যান্ড সফরের জন্য ২২ সদস্যের প্রাথমিক স্কোয়াড ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।প্রস্তুতি ম্যাচ শেষে আগামী ২৬ ডিসেম্বর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে খেলতে নামবে বাংলাদেশ দল।বাকি দুই ওয়ানডে ম্যাচ হবে ২৯ ও ৩১ ডিসেম্বর। ওয়ানডে সিরিজ শেষে যথাক্রমে ৩, ৬ ও ৮ জানুয়ারি ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে দুই দল। সিরিজের প্রথম টেস্ট হবে শুরু হবে ১২ জানুয়ারি ও শেষ ম্যাচ হবে ২০ জানুয়ারি।
বাংলাদেশের প্রস্তুতি ক্যাম্পের স্কোয়াড : তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মোমিনুল হক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, সৌম্য সরকার, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, নুরুল হাসান সোহান, মেহেদি হাসান মিরাজ, শুভাগত হোম চৌধুরী, নাজমুল হোসেন শান্ত, তাইজুল ইসলাম,মাশরাফি বিন মর্তুজা, মুস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম, শুভাশিষ রায়, মোহাম্মদ শহীদ, এবাদত হোসেন ও তানবীর হায়দার।
স্ট্যান্ডবাই : শাহরিয়ার নাফীস,আব্দুল মজিদ,লিটন কুমার দাস, মোশাররফ হোসেন রুবেল, কামরুল ইসলাম রাব্বি, আল-আমিন হোসেন, আলাউদ্দিন।