একটি ভাবনার আকাশ ও একটি সূর্য

বিশিষ্ট শিল্পী কনকচাঁপা এবার গানের পাশাপাশি প্রাণের বাংলার পাতায় নিয়মিত লিখবেন তার জীবনের কথা। কাটাঘুড়ির মতো কিছুটাআনমনা সেসব কথা, হয়তো কিছুটা অভিমানিও। কিছুটা রৌদ্রের মতো, খানিকটা উজ্জ্বল হাসির মতো। পড়ুন কাটাঘুড়ি বিভাগে।

কনকচাঁপা

 ফোর ফাইভ এ যখন পড়ি তখন, ইতোমধ্যে বুঝে গেছি আমার বিত্ত আসলে নিম্ন মধ্যবিত্ত। চাইলেই অনেক কিছু কেন, মোটামুটি কোনকিছুই পাবোনা।বেসিক চাওয়া-পাওয়া জোটানো ই যেখানে বাব মার পক্ষে সম্ভব না সেখানে শখের ব্যপারগুলো আসলেই আমার নাগালের বাইরে থেকে যাচ্ছে।কিন্তু আমি আমার পাওয়ার যে পরিধি তা কিছুতেই ধরতে পারিনা।আমি বুঝি না যে বেসিক নিড এর মধ্যে বই খাতা পেন্সিল এর সঙ্গে জুতা মোজা রঙ পেন্সিল ড্রইং খাতা পড়ে কিনা! ছোট মানুষ তায় মনে বাড়তি ফ্যান্টাসিতে ভরা,তার তো এই জগৎসংসার এর ভয়ংকর হিসেব মেলানোর কথাও না।তা আমি বুঝি আব্বার সহজ সরল স্বীকারোক্তির জন্য। konokchapa_nov_4জুতা বা স্যন্ডেলের নেশা আমার ছোট বয়স থেকেই।কিন্তু হিসেবের বাইরে কখনওই তা পাবো না আমি জানি।তাই বার্ষিক পরীক্ষার আগে স্টেপলার পিন,কার্ডবোর্ড,নানান রঙের ফিতা আলাদা করে জমাতাম।আর আগলে রাখতাম জলরং, সাদা কাগজ।পরীক্ষা শেষ হতেই কার্ডবোর্ড দিয়ে পায়ের মাপ নিয়ে স্যান্ডেল বানাতাম।আর তা পরে তো হাঁটা যেতো না,তাই ওগুলো পরে বিছানাতেই বসে থাকতাম।আহা,ওই কাগজের স্যান্ডেল এর কি পথচলা! ওটা পায়ে দিয়ে লম্বা পথ মনে মনে পাড়ি দিতাম,আর কল্পনায় দেখতাম পাড়ার বন্ধু বা বোনেরা হিংসার চোখে তাকিয়ে আছে।আমি বিছানায় বসেই আকাশে উড়তাম।আব্বা কিছু খেয়াল করতেন নাকি জানিনা,আম্মা একটু বিরক্ত হতেন,তাঁর ভাষ্য, কাগজ হল বিদ্যার ধন।তা পায়ে ছোঁয়ানো ঠিক না।আমি ভীষন কষ্ট পেতাম।ভাবতাম এ মহিলা আমার মা হতেই পারেন না।এতো শখের একটা বিষয়, সেটার এই ব্যাখ্যা! আমি যে কষ্ট পাই তা কি মা নামের এই মহিলা বোঝেন? হাহাহা আর পরীক্ষার পর ছবি আঁকা! আহা! সেই পেন্সিল, সেই সাদা কাগজ, সেই টিউব এর রঙের কোরা গন্ধ!আমি ঘরে বসে থেকেই আস্ত একটা আকাশ পেতাম,পেতাম পরীর ডানা,রঙধনু, পেতাম সুরের পরাবাস্তব ওঠানামা,পেতাম জীবনের পরের জীবনের আভাস!কারন আব্বা মৃত্যু এবং পরবর্তী জীবনের গল্প শোনাতেন। কি এক অজানা জগতে একটি সূর্য আর একটি আকাশ আমাকে বিশাল একটি ক্যানভাস এনে দিতো আমার ভাবনায়।আমি ইস্কুলের আম কলা আঁকা দিদিমনির জন্য করুণা মিশ্রিত মায়া অনুভব করতাম।বাবা সেখানেও বাধ সাধতেন আর বলতেন এমন বলতে হয়না মা! আমি ভাবতাম আম কলা আর কামরাঙা আঁকার জন্য পেন্সিল এর জন্ম যে হয়নি তা দিদিমনিকে একদিন আমি বলবোই বলবো।