চমকে দিলেন আফিফ

এজাজ রহমানঃ গত শনিবার দুপুরের আগে আফিফ হোসেন ছিলেন অপরিচিত এক ক্রিকেটার, অনুর্ধ-১৯ দলের একজন খেলোয়াড়। কিন্তু চিটাগাং ভাইকিংসের বিরুদ্ধে রাজশাহীর ম্যাচটা ছিল তার টার্নিং পয়েন্ট। চমক ছড়িয়ে রাতারাতি তারকা বনে গেলেন এই ১৭ বছর বয়সী ক্রিকেটার। মাত্র ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে চিটাগাংগের ৫টি উইকেট তুলে নিয়ে এই অফ স্পিনার এখন আলোচনার কেন্দ্রে। একইসঙ্গে আফিফ টি২০ ম্যাচে প্রথম বাংলাদেশী বোলার যিনি ৪ ওভারে ৫টি উইকেট দখলের সম্মান অর্জন করলেন।

খেলার পঞ্চম ওভারে বল করতে এসেছিলেন আফিফ। তার আক্রমণের প্রথম শিকার চিটাগাং-এর জহিরুল ইসলাম। আফিফের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে জহির ফিরে যাবার পর আফিফ ফিরিয়ে দেন ক্রিকেট দানব ক্রিস গেইলকে।এরপর এই অফ স্পিনারের আক্রমণে পরাস্ত হয়ে সাজঘরে ফিরে যান চিটাগাং ভাইকিংসের জাকির হোসেন, সাকলাইন সজিব ও ইমরান খান।

আফিফের জন্ম ১৯৯৯ সালে খুলনায়।বিকেএসপি‘র ছাত্র আফিফ আগামী এশিয়া কাপে খেলতে যাবার জন্য প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন।

ম্যাচে রাজশাহীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান বোলার কেসরিক উইলিয়ামস সংগ্রহ করেন আরও দুটি উইকেট। তার বলে শূণ্য রানে ঘরে ফিরে যান তামিম ইকবাল। চিটাগাং ভাইকিংসের বিপদের দিনে ব্যাট হাতে শোয়েব মালিকের অপরাজিত ৬৭ কিছুক্ষণের জন্য লড়াইয়ের স্বাদ এনে দেয়। এই ৬৭ রানের মধ্যে চারটি চার ও তিনটি ছক্কার মার।

ব্যাট করতে নেমে রাজশাহী প্রথমেই হারায় তাদের নুরুল হাসান ও মঈনুল হকের উইকেট। তবে এরপরে লক্ষ্যে পৌঁছুতে রাজশাহীকে খুব বেশী বেগ পেতে হয়নি। নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার জেমস ফ্র্যাংলিন ২৭ বলে ৬৩ রান করেন।

ছবিঃ ইএসপিএন