নিউজিল্যান্ড সফরকে চ্যালেঞ্জ মনে করছেন মুশফিকুর

আহসান শামীমঃ অস্ট্রেলিয়ায় প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে সিডনি সিক্সার্সের বিপক্ষে বৃষ্টি আইনে ৭ উইকেটে জয় পায় বাংলাদেশ। গেল শুক্রবার দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে সিডনি থান্ডারের বিপক্ষে। এদিন অবশ্য ব্যাটিং ব্যর্থতায় জয় পায়নি বিশিসিবি একাদশ,হেরে গেছে ৭ উইকেটে। টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫ ওভারে ২১ রানে ৪ উইকেট হারায় বিসিসিবি একাদশ । তামিম,সাকিব,মাশরাফি,মুস্তাফিজ সহ দলের গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় মাঠে নামেননি। তরুণ খেলোয়াড়দের নিয়ে মাঠে নামে বিসিসিবি একাদশ। শুরু থেকে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে শুরুতেই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে যায় মুশফিকুরের নেতৃত্বে বিসিসিবি একাদশ। শেষদিকে নুরুল হাসান সোহান ও শুভাগত হোমের ব্যাট ভর করে ১২২ রানের সংগ্রহ পায় বাংলাদেশ।

soumya-pulls-jpg-nsম্যাচ শেষে মুশফিকুর রহিমের কাছে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে গণমাধ্যমকে বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক বলেন, ‘সিডনি থান্ডার ম্যাচটা জিতে নিয়েছে। তবে আমি মনে করি এই মাঠে আমরা ২০ রান কম করেছি। যদিও এই মাঠে ব্যাট করা কিছুটা কঠিন। তারপরও শুরুতেই আমাদের ব্যাটসম্যানদের উপর সিডনি থান্ডারের বোলাররা চাপ তৈরি করে। এই ম্যাচে আমাদের দলের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় খেলেননি। তারা যদি খেলত তাহলে ফল হয়তো ভিন্ন হতে পারত। আমি মনে করি আমাদের ব্যাটসম্যানরা শুরু থেকেই তাড়াহুড়ো করেছে। তাতে শুরুতেই আমরা অনেক উইকেট হারিয়ে বসি।

সিডনি থান্ডারের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, এই ম্যাচে সিডনির বেশ কয়েকজন ওয়াটসের মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় খেলেননি। তারপরও আমি মনে করি তারা দারুণ দল।

প্রস্তুতি ম্যাচ হলেও মাঠে প্রচুর দর্শক সমাগম হয়েছে। সে বিষয়ে মুশফিক বলেন, ‘এটা আসলে খুবই ভালো লাগার মতো একটি বিষয়। এর আগে আমরা যখন এখানে বিশ্বকাপ খেলতে এসেছিলাম তখনও অনেক প্রবাসী বাংলাদেশি মাঠে এসে আমাদের সমর্থন জুগিয়েছিলেন। তাদের সামনে খেলতে আমাদেরও বেশ ভালো লাগে।

নিউজিল্যান্ড সফরের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এই সফরটা আমাদের জন্য এক ধরণের চ্যালেঞ্জ। গেল কয়েক বছর ধরে ঘরের মাঠে আমরা বেশ ভালো ক্রিকেট খেলছি। এবার দেশের বাইরে ভালো খেলার চ্যালেঞ্জটা নিতে হচ্ছে আমাদের। যদিও এই সফরটা সহজ হবে না, সে কারণেই আমরা এখানে আগেভাগে এসেছি। যাতে করে কন্ডিশনের সঙ্গে খাপ খাওয়াতে পারি। এখানে ছেলেরা বেশ ভালো করছে।’