প্রাণের সংযুক্তি

নান্দনিক

সাহিত্য

Ads-23

নির্বাচিত

দূরের হাওয়া

সর্বজয়া

pb-ads

খেলার জগৎ

ফেইসবুক কথা

বিশ্ববাংলা

প্রযুক্তি

খোলা জানালা

ফিরে দেখা

প্রিয় প্রচ্ছদ

প্রাণের কথা

লিখতে বসে প্রতি সপ্তাহেই ভাবি বেদনার কথা লিখবো না, বিষাদের কথা লিখবো না। কিন্তু ঘটনা-দূর্ঘটনা তো আমার মুখ চেয়ে বসে থাকে না। একটার পর একটা মন খারাপ করে দেয়া বিষয় সামনে চলেই আসে।সড়ক দূর্ঘটনায় আরেকটি জীবন ঝরে গেলো এই শহরে। একজন মেধাবী ছাত্রের মৃত্যু ঘটলো উন্মত্ত এক বাস চালকের হাতে।এরকম অব্যবস্থা, চালকদের বেসামাল গাড়ি চালনা আর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা যে কতদিন রাজত্ব করবে রাজপথে সেটাই অসহায়ের মতো বসে বসে ভাবি। কবে আমাদের সবার বোধদয় ঘটবে কে জানে? শুধু চালককে দোষ দিয়েই বা কী লাভ? আমরা যারা এই শহরে বসবাস করি, প্রতিদিন কাজের টানে পথে নামি তারাও কি নিজেদের দায়িত্ব পালন করছি ঠিকঠাক? আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজের কাছে এই প্রশ্নটা করি না আমরা। করার সময় চলে যচ্ছে।
শুধু কয়েক কলম লিখেই নিজের দায় শেষ করে ফেললাম আজ। কিন্তু সমস্যা অথবা সংকট যাই বলি না কেনো এতে দায়িত্ব শেষ হয়ে যায় না। এড়ানো যায় হয়তো। দায়িত্ব এড়িয়ে গিয়ে কাটিয়ে দিচ্ছি বছরের পর বছর। আশ্চর্য্! একটু শোক, খানিকটা ক্ষোভ আর কয়েকটি প্রশ্ন-ব্যাস, সব শেষ । আবার আমাদের নিত্যদিনের রুটিন নিয়ে পথ চলা। পারিও আমরা।
প্রিয় পাঠক, প্রাণের বাংলার সুহৃদ, আপনারা ভালো থাকবেন, সাবধানে চলাচল করবেন। ট্রাফিক আইন মেনে চলবেন।

sign

note

এই সংখ্যায় যা থাকছে