অঘটন আর রেকর্ডের বিশ্বকাপ

আহসান শামীমঃ রাশিয়া বিশ্বকাপে, জার্মানি, আর্জেন্টিনা, পর্তুগাল, স্পেন-এর মত এতগুলো টপ ফেভারিটদের কোয়াটার ফাইনালে না পৌঁছাতে পারাটাও কিন্তু একটা রেকর্ড। পাশাপাশি রাশিয়ার প্রথমবার কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছানো, বেলজিয়ামের বিরুদ্ধে জাপানের দুর্দান্ত খেলা প্রশ্ন রেখে যাচ্ছে  এতো অঘটনের পর রাশিয়ার বিশ্বকাপ কে ঘরে তুলবে?

মেক্সিকোর বিপক্ষে ম্যাচে জয়ের পাশাপাশি নতুন করে রেকর্ড করলো ব্রাজিল। ২২৮ গোল করে এই আসরে সর্বোচ্চ রেকর্ড এখন তাদের দখলে।৫১তম মিনিটে নেইমারের গোলে রেকর্ড নিজেদের করে নেয় ব্রাজিল। বিশ্বকাপে ব্রাজিলের এটা ২২৮ তম গোল।২২৬ গোল নিয়ে এতদিন যৌথভাবে তালিকার শীর্ষে ছিল ব্রাজিল ও জার্মানি। গতবারের চ্যাম্পিয়নরা গ্রুপ পর্ব থেকেই ছিটকে যাওয়ায় রেকর্ডটাকে আরও উঁচুতে নেওয়ার সুযোগ পাচ্ছে ব্রাজিল।

বিশ্বকাপের মূল আসরে ব্রাজিলের বিপক্ষে আজ অবাধি পাঁচবার মুখোমুখি হয়েও কোন জয় এমন কি গোল না করতে পারার রেকর্ডটা এবারও ভাঙ্গতে পারলেন না মেক্সিকোর খেলোয়াড়রা।বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত পাঁচ বারের দেখায় প্রতিটায় জয় পেয়েছে ব্রাজিল। গোল করেছে ১৩ টা ব্রাজিলের জালে আজ পর্যন্ত বল ঢোকাতে পারেনি মেক্সিকো।

মেক্সিকোর বিপক্ষে নিজের বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারে ষষ্ঠ গোল উদযাপন করলেন নেইমার।গোলগুলো দিতে নেইমারকে মোট ৩৮ টি শট খেলতে হয়েছে। রাশিয়া আসর থেকে বিদায় নেয়া লিওনেল মেসি ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেলে তিনি এই রেকর্ড স্পর্শ করলেন। বিশ্বকাপ মঞ্চে ৬ গোল করতে আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসির লেগেছে ৬৭ টি শট। পর্তুগাল তারকা রোনালদোর ৬ গোল করতে লেগেছে ৭৪ শট।

রাশিয়া বিশ্বকাপের শুরুতে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে রেকর্ড ১০বার ফাউলের শিকার হন নেইমার। ১৯৯৮ এর বিশ্বকাপে ইংল্যান্ডের  অ্যালান শিয়ারারকে একই ম্যাচে ১১ বার ফাউল করেন তিউনিসিয়ার খেলোয়াড়রা।এক ম্যাচে এতোবার ফাউলের শিকারের রেকর্ডটা আজও অক্ষুন্ন।

রাশিয়ার বিপক্ষে আত্মঘাতি গোলে এগিয়ে গেল স্পেন। ম্যাচের ১২ মিনিটে জটলা থেকে সার্জিও রামোসের শট সের্গেই ইগনাশেভিচে গায়ে লেগে গোলমুখে চলে যায়। রাশিয়ার বিপক্ষে শেষ পর্যন্ত স্পট  কিকে বিশ্বকাপ থেকে ফেভারিট স্পেনকে বিদায় নিতে হলেও,আত্মঘাতি গোলে ৫২ বছর পর নতুন বিশ্ব রেকর্ডে নাম লেখালো রুশ দল। বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি আত্মঘাতী গোল হজম করার রেকর্ড গড়েছে রুশরা। গ্রুপপর্বে উরুগুয়ের পর দ্বিতীয় রাউন্ডে আবার নিজেদের জালে বল জড়িয়েছেন রাশিয়ার ফুটবলাররা। ১৯৬৬ সালে, এক বিশ্বকাপে দুই আত্মঘাতী গোল হজম করার রেকর্ডটা ছিল বুলিগেরিয়ার। ইতিমধ্যেই রাশিয়ায় আত্মঘাতী গোলের সংখ্যাটা অতীতের সব রেকর্ডকে ছাড়িয়ে গেছে।মোট দশটা আত্মঘাতী গোল নিয়ে তালিকার শীর্ষে রয়েছে তারা এবারের বিশ্বকাপে।  ১৯৯৮ ফ্রান্স বিশ্বকাপে সর্বমোট ৬টা আত্মঘাতী গোল হয়েছিল।

আজ শেষ হতে যাচ্ছে দ্বিতীয় পর্বের শেষ দুই ম্যাচ এরপরই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে চলে আসবে এবার সম্ভাব্য বিশ্বকাপ কার ঘরে যাবে সেই অঙ্ক।

ছবিঃ ফুটবল টুইট