অতুলনীয় তুলনা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ইশতিয়াক নাসির, স্ট্যান্ডআপ কমেডিয়ান

ছোটবেলা থেকেই শুনে আসছি। এখনো শুনি। আগে শুনতাম অমুক বাড়ির অমুকের ছেলে পরীক্ষায় এত ভালো রেজাল্ট করলো, তুই কি করলি? আর এখন শুনি অমুক বাড়ির অমুকের ছেলে অমুক জায়গায় চাকরী করে আর তুই জীবনে কি করলি? এগুলো আমার মা বাবার কথা।আমি স্বাধীন পেশায় আছি, এটাই তাদের মনঃপীড়ার কারন। মধ্যবিত্ত মানসিকতা, অন্যের গোলামী না করলে সিকিউরড ফিল করেনা।অবশ্য আমার মা বাবার আসল চিন্তা অন্য জায়গায়। তাদের ধারনা আমার কাছে কেউ মেয়ে বিয়ে দেবেনা। এটাও খুব স্বাভাবিক চিন্তা। চাকরী না করা একটা ছেলেকে কোন মেয়ে বিয়ে করতে চাইবে?আবার যদি বা কোনভাবে বিয়ের জন্য কেউ রাজীও হয়, সেখানেও খালি তুলনাই হবে।‘অমুকের বিয়েতে দেনমোহর হয়েছে বিশ লাখ টাকা, এদের কত?’ ‘অমুকের বিয়ের মুরগীর রোস্টটা ছিল বড়, এদেরগুলা এত ছোট ক্যান?’ ‘অমুকের বিয়েতে কত টাকা খরচ করসে, এরা মনে হয় গরীব পার্টি!’ আবার বিয়ের অস্থায়ী ঝামেলা মিটে গেলে শুরু হয় চিরস্থায়ী ঝামেলা। বিয়ের পর বউরাও তো তুলনার খোঁটাতেই হাজব্যান্ডকে ঘায়েল করে। ‘অমুকের হাজব্যান্ড অমুককে হীরার আংটি দিয়েছে, অমুকে জমি কিনলো, ফ্ল্যাট কিনলো আর তুমি কি করলে?’ ‘অমুকের হাজব্যান্ড কিছুদিন পর পর ভাবীকে নিয়ে সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া যায় আর তোমার তো কক্সবাজারে নিয়ে যাওয়ার মুরোদ নাই!’ ঘরের অশান্তির জ্বালায় বাইরে যেয়েও আপনি শান্তি পাবেন না। আপনার হাতে যদি একটা দামী মোবাইল থাকে তো পেছন থেকে শুনতে পাবেন, ‘হুদাই ভাব দেখানোর জন্য আমরা মোবাইল নিয়ে ঘুরিনা’ ‘নিশ্চয়ই লাগেজ পার্টির মাল, অল্প টাকায় সেকেন্ড হ্যান্ড মাল কিন্যা ভাব ধরতাসে’। আবার যদি বা কমদামী একটা সেট থাকে তাও রেহাই নেই।সঙ্গে সঙ্গে আপনাকে শুনিয়ে দেবে, ‘আমি তো ভাই, ব্র্যান্ডের জিনিষ ছাড়া কিনি না’। মানে যে কোন মূল্যে তুলনা করতেই হবে। অন্যকে ছোট করে নিজের বড় হওয়া চাই। এমনিতে হয়ত সারাক্ষন পুলিশকে গালি দিয়ে কথা বলে, কিন্তু যদি শোনে আপনার পরিবারের কেউ বা আত্মীয়-স্বজনের মধ্যে কেউ আর্মি বা পুলিশে আছে ওমনি শুনবেন, ‘আমার মামা শ্বশুরের ছোট ভাইয়ের ভগ্নিপতির ছোট শালাও তো গতবার পুলিশে জয়েন করল!’ পরীক্ষায় খারাপ করলে নিজেই নিজেকে বিল গেটস্‌ এর সঙ্গে তুলনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয় আজকালকার ছেলেমেয়েরা। আবার পরীক্ষায় ভালো করলে ভাবে গুগলের সিইও হয়ে গেছে। ফেসবুক সেলিব্রেটিরা তুলনা করে কার কত ফ্যান ফলোয়ার আছে। সঙ্গীত শিল্পীরা সাংবাদিকদের কাছে তুলনা করে কার মিউজিক ভিডিও কত লক্ষবার মানুষ দেখেছে। যদিও বলেনা ডলার খরচ করে ডিজিটাল মার্কেটিং হয়েছে জাস্ট, ঐ গান শুনে কুকুরেও পাড়ার মোড়ের ল্যাম্পপোস্টের গায়ে মোতেনি। খালি তুলনা, এর সাথে ওর, ওর সাথে তার। তুলনা করতে করতেই জীবন থেকে শান্তি বা সন্তুষ্টির জায়গাটা উধাও হয়ে গেছে। সামাজিক কোন অনুষ্ঠানে গেলে মেয়েরা করে একে অন্যের সাথে শাড়ি-গয়নার তুলনা, আর ছেলেদের কার গাড়ির মডেল কোনটা সেই নিয়ে আলোচনা। কার ধর্ম ভালো, কে সঠিক সেই নিয়ে তুলনা আর যুদ্ধ তো আছেই। সোশ্যাল নেটওয়ার্কে একে অন্যের চৌদ্দগুষ্টি উদ্দার করার প্রবণতা তো আছেই। সব ক্ষেত্রেই কেউ না কেই দাঁড়িপাল্লা নিয়ে বসেই আছে আপনার ভালোমন্দ বিচার করার। কোন কাজ করেই কাউকে সন্তুষ্ট করা যায়না। কোন না কোন ভাবে আমরা তুলনা করি এবং সেই সঙ্গে বিচারও করে ফেলি কে ভালো আর কে খারাপ।কারো ভালো দেখলে নিজের সঙ্গে তুলনা করি, আর ভেতরে ভেতরে জ্বলি। মনের মধ্যে অশান্তি, রাতে ঘুম হয়না, তাও তুলনা করাও বন্ধ হয়না। অন্য দেশ, জাতিকে গালাগাল করে নিজের দেশের সঙ্গে তুলনা করে কত বড় দেশপ্রেমিক সাজার চেষ্টা করি। সৌন্দর্য্যের বিচার করতে গেলেও তুলনা। কে ফর্সা কে কালো, কার কোনটা কি ছোট না বড়, গায়ে মাংস বেশি না কম?কবি কবিতা লিখতে যেয়েও বলতে ভোলেনা, ‘তুমি অতুলনীয়!’ ঘুরে ফিরে তুলনার মধ্যে যেতেই হবে। সবচেয়ে বড় কথা কমেডি করতে এসেও তুলনার হাত থেকে বাঁচতে পারিনি। ভেবেছিলাম সবাইকে আনন্দ দিলে বা হাসানোর চেষ্টা করলে হয়তবা মানুষ আমাকে এত সহজেই জাজমেন্ট করতে চাইবেনা। কিন্তু কিসের কি! একবার পারফর্ম শেষে করে স্টেজ থেকে নামছি এমন সময় কানে আসল, ‘এই হালায় কি কমেডি করে? এর চেয়ে তো আমাগো অফিসের বোরহান সাহেব হাসাইয়া ফাটাইয়া ফালায়’! আমি জানি আমার স্টেজ পারসোনা এত ফানি না, জোকস্‌ ম্যাটেরিয়াল এত সলিড না, আরো বহু বছরের সাধনা বাকী আছে একজন সফল কমেডিয়ান হওয়ার জন্য কিন্তু ……বোরহান সাহেবকে ঠিক চিনলাম না!

ছবি: গুগল

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]