আইনের প্যাঁচে হেরেছে বাংলাদেশ

আহসান শামীমঃ আইসিসির অদ্ভুত এক আইনে হেরেছে বাংলাদেশ।তা না-হলে মুশফিকের হাত ধরেই জিতে যেত বাংলাদেশ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) রিভিউ আইনের সামনে কুপোকাত হয়েছেন মুশফিকুর রহিম-মাশরাফি বিন মুর্তজারা।

ম্যাচ তখন ৪৩ ওভারে। মুশফিকুর রহিম ব্যক্তিগত ৩৫ রানে ব্যাট করছেন। প্রতিপক্ষ স্পিনার বিশু। বলটা ফ্ল্যাট লেন্থে ছিল। রিভার্স সুইপ করেছিলেন মুশফিক। ব্যাটের কানায় লেগে বল বাউন্ডারিতে চলে যায়।  রান হওয়ার আগেই  এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে সাড়া দিলেন আম্পায়ার। তাতেই অঘটন। মুশফিক রিভিউ নিয়ে উইকেট বাঁচিয়ে মাঠে থাকার সুযোগ পেলেন বটে, কিন্তু রানটা আর যোগ হলো না।

৬৮ রানের ইনিংস খেলার মাঝে ঐ রান যোগ হয়নি। হলে সমালোচিত হতেন না মুশফিক, সেখানে ওই ৪ রান হলে বাংলাদেশকে ভোগান্তিতে পড়তে হতো না। কাঁধের কাছে জয়ের নিশ্বাস ক্রমশ দূরে সরে গিয়ে সইতে হতো না ৩ রানের হারের জ্বালাপোড়া।আইসিসির এই অদ্ভুত আইনে বলা আছে, আম্পায়ার যদি আউটের সিদ্ধান্ত দেন, তারপর যদি ওই রিভিউয়ের সিদ্ধান্ত ঘুরে যায় তাহলে ওই বলে আর কোনো রান পাবে না ব্যাটিং দল।মানে হলো, আম্পায়ার আউট দেওয়া মানে ওই বল ডেড। যে কারণেই রান করলেও রান পাওয়া যাবে না।

আইনের এমন মারপ্যাঁচ নিয়ে শুরু থেকেই বিতর্ক হয়ে এসেছে। এ নিয়ে সাবেক ক্রিকেটার ও বিশেষজ্ঞদের পক্ষ থেকে আইনের ‘রিভিউ’ করার দাবিও উঠেছে। ৪ রান যোগ না হওয়ার হিসবটা অনেকেরই জানা নাই, তারপরও এমন সুযোগ হাতছাড়া হওয়া অনেকটাই হয়তো পোড়াচ্ছে বাংলাদেশ দলকে।

ছবিঃ গুগল