আগামী বিশ্বকাপের কাটাকুটিতে বাংলাদেশ

আহসান শামীমঃ গেল বুধবার ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আসন্ন সিরিজে দুটা ম্যাচ জিততে পারলেই ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপে সরাসরি খেলবে পাকিস্তান।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ১৩ জানুয়ারী থেকে ব্রিজবেনে শুরু হওয়া অষ্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে দুটা মাচে জয় পেলে রেটিংয়ে বাংলাদেশের সমান হবে পাকিস্তান। তবে পয়েন্ট বেশি থাকায়  বাংলাদেশের চাইতে এগিয়ে থাকবে দেশটি। আর যদি পাকিস্তান অস্ট্রেলিয়ায় ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেয় তা হবে তাদের জন্য খুবই সুবিধাজনক। সেক্ষেত্রে রেটিংয়েও বাংলাদেশের সামনে অবস্থান করবে তারা। এতে বিশ্বকাপে সরাসরি খেলতে পাকিস্তানের সামনে আর কোনা বাধাই থাকবে না। আর বাংলাদেশ যদি ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর মধ্যে পয়েন্ট টেবিলে  আটের ভেতরে থাকতে না পারে তাহলে নিজ দেশে কোয়ালিফাইং রাউন্ড খেলে বিশ্বকাপের টিকিট নিশ্চিত করতে হবে মাশরাফিদের। আবার পাকিস্তান ১টা ম্যাচ জিতে সিরিজ হারলে বাংলাদেশের পেছনেই পড়ে থাকবে। আর যদি কোনো ম্যাচ জিততে না পারলে  তারা নিজেদের অবস্থান থেকে আরও পিছিয়ে পড়বে।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে পাকিস্তানের ৫ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ চলছে । বর্তমানে বাংলাদেশ ৯১ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তমে অবস্থান করছে। আর ৮৯ পয়েন্ট নিয়ে বাংলাদেশের ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলছে পাকিস্তান। অন্যদিকে পাকিস্তানের ঠিক পেছনেই রয়েছে ওয়েস্টইন্ডিজ ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে।১৩ জানুয়ারী থেকে শুরু হওয়া অস্ট্লিয়ার বিপক্ষে পাকিস্তান প্রথম খেলায় হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে পাকিস্তান জয় লাভ করায় বাংলাদেশের জন্য আগামীবার বিশ্বকাপের খেলা নিয়ে কিছুটা সংশয় তৈরী হয়েছে । এছাড়াও আইসিসির পয়েন্ট টেবিলে বাংলাদেশ দলের অবস্থানও কিছুটা হুমকির মুখে । যদিও ২০১৭ সালের সেম্পটেম্বরের আগে বাংলাদেশের সামনেও কয়েকটা ওয়ানডে সিরিজ রয়েছে আর সেসব সিরিজ সরাসরি জয়ী না হলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য বিশ্বকাপ ক্রিকেট সরাসরি অংশগ্রহণের সম্ভাবনা কম ।