আপনাকে মনে পড়বে কবরী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাঙালির ‘সুচিত্রা সেন সিনন্ড্রোম’ তখনও ভীষণ শক্তিশালী। ষাটের দশকে ঢাকা শহরে সিনেমা হলের পর্দায় দাপটে রাজত্ব করছেন সোফিয়া লরেন, এলিজাবেথ টেইলার আর ইনগ্রিড বার্গম্যান। তখন তিনি এসেছিলেন। আর তখনই মিনা পাল থেকে কবরী হয়ে ওঠার একটি গল্পের শুরু। পর্দায় ১৯৬৪ সালে তাঁর অভিনীত প্রথম ছবি সুভাষ দত্ত পরিচালিত ‘সুতরাং’। এক অনিন্দ্য সুন্দর মুখশ্রীর গল্পের শুরুতেই লেখা হয়ে গেলো তিনটি শব্দ, ভিনি ভিডি ভিসি। কবরী এলেন, দেখলেন এবং জয় করে নিলেন। কবরী হাসলেন, কবরী তাকালেন, কবরী কাঁদলেনও। দর্শকদের মনে রাজত্ব করা প্রায় জীবন্ত কিংবদন্তীর মতো অভিনেত্রীদের মুখোমুখি হলেন কবরী। তাঁর অভিনয়ে মুদ্ধ হলো বাংলা সিনেমার দর্শক। সিনেমায় তাঁর হাসি-কান্না আর অসাধারণ অভিনয় জড়িয়ে নিলো মানুষকে। এই জড়িয়ে নেয়ার ক্ষমতাটাই ছিলো কবরীর ম্যাজিক।

কোনো চরিত্রেই তাকে বেমানান মনে হয়নি কখনো। যে কোনো চরিত্রেই তার অভিনয়ের বিশ্বাসযোগ্যতা তাঁকে সব শ্রেণীর দর্শকের হৃদয়ের কাছে নিয়ে গিয়েছিলো। অভিনয়ের এই বিশ্বাসযোগ্যতাই একজন শক্তিশালী অভিনয় শিল্পীর স্বাক্ষর হয়ে থাকে। কবরীর বেলায়ও তাই ঘটেছে। ষাট অথবা সত্তরের দশকে তিনি একাধিক ছবিতে শহুরে মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। পোশাক হিসেবে বেছে নিয়েছেন শাড়ি, স্লিভলেস ব্লাউজ। কিন্তু ১৯৭৫ সালে ‘সুজন সখী’ ছবিতে তিনি যখন সখী চরিত্রে অভিনয় করলেন তখন অবলীলায় হয়ে উঠলেন গ্রাম বাংলার অতিপরিচিত একটি মেয়ে।‘সারেং বউ’ অথবা ঋত্বিক ঘটক পরিচালিত ‘তিতাস একটি নদীর নাম’ ছবিতে তাঁর অভিনয় এই ভিন্ন স্বাক্ষরই বহন করছে।

কবরীর ম্যাজিকটা ছিলো এখানেই। এখানেই তিনি অন্যদের চাইতে আলাদা হয়েছিলেন, তৈরি করেছিলেন নিজের আলাদা জায়গা। আমাদের সিনেমার দর্শকরা তখন একজন নায়িকা খুঁজছিলেন। সেই নায়িকা তাদের সামনে এসে দাঁড়ালেন সিনেমা হলের পর্দায়।

কবরী পৃথিবীকে বিদায় বললেন ৭০ বছর বয়সে। কী এক উজ্জ্বল যাত্রার ওপর আজ ১৭ এপ্রিল ২০২১ সালে নেমে এলো শেষ দৃশ্যের পর্দা। কোভিড-১৯ রোগ তাঁকে কেড়ে নিলো আমাদের কাছ থেকে। তাঁর প্রিয় সিনেমার পৃথিবী থেকে।

১৭ এপ্রিল রাত ১২টা ২০ মিনিটে ঢাকার শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে মারা গেলেন কবরী। গত ৫ই এপ্রিল করোনাভাইরাস পজিটিভ রিপোর্ট পাওয়ার পর ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি।

বিদায় বলা যায় না তাকে। বলা যায় আপনি ছিলেন আমাদের হয়ে, আপনি থাকবেন কবরী। আপনাকে মনে পড়বে আমাদের।

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

ছবিঃ গুগল


প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না, তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]


Facebook Comments Box