আপনার ঘরের মধ্যেই সব আছে

জুনায়েদ সজিব

জুনায়েদ সজিব

 (সুইজারল্যান্ড থেকে):আমি একজন মা ও তার সন্তানকে চিনি।সন্তানটির মা একজন পতিতালয়ে কমর্জীবি নারী।তিনি আমারও একজন মা কেননা, তিনি আমাকে নিজের সন্তানের মতোই জানেন। আমি তাকে প্রায় সময়েই ফোন দিলে মা বলে ডাকতাম, সত্যিই সেই অনুভূতি বলে বুঝাতে পারবোনা। কেননা প্রায় তিনি কেঁদে দিতেন আর বলতেন বাবা তুমি আমায় মা ডাকলে আমার অনেক দিন বাচতে ইচ্ছা করে।তার সন্তানটি আমার অন্যতম প্রিয়বন্ধু।
তার সন্তান এখন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে, আচ্ছা সেই মা তো পারতেন সন্তানটিকে রাস্তায় ফেলে দিতে, সেই সন্তানটি তো পারতো বড়ো হয়ে তার মাকে ভুলে যেতে। আচ্ছা ছেলেটিতো কোন দিনই তার বাবাকে দেখবেনা। আচ্ছা ছেলেটি হয়তো মনে মনে তার বাবার ছবি আঁকে! কই সেই ছেলেটি তো খারাপ হয়নি। সেতো পাওয়া না পাওয়ার হিসাব কষে থেমে নেই।
এরপরও কি আপিনি বলবেন আপনি সুখে নেই, এই সন্তানটির কথা একবার মনে করেন তো? পৃথিবীর সবচেয়ে সেই ব্যক্তিটি সুখী যার মা-বাবাআছেন।
এবং সবচেয়ে সম্পদশীল।
আর একজনের কথা বলি যে তার জন্মের পর তার বাবা-মাকে কখনও দেখেনি, কোন দিনই দেখতে পারবেননা। আসলে সে নিজোও জানেনা তার জন্ম কোথায় হয়েছে। কেননা সে জন্মের পরrajib128 থেকেই একটি শিশু-সদনে বড়ো হয়েছেন। সে তার মাকে কোন দিনই মা বলে ডাকতে পারবেননা সে তার বাবার‌কাছে কোন দিনই কোন কিছুই বায়না করতে পারবেননা।  কোনদিন কষ্ট পেলে তার মাকে জড়িয়ে ধরতে পারবেননা। কোন ঈদে সে তার বাবার হাত ধরে ঈদগায়ে নামাজে যেয়ে নামাজ পড়তে যেতে পারেননি আর পারবেন ও না।
যদিও তিনি এখন একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকুরি করেন, কিন্তু প্রত্যেক মাসের বেতনের একটি অংশ একজন অসহায় মা-বাবাকে দিয়ে সাহায্যে করেন।নিজের মা-বাবা হিসাবে জানেন।এবং তিনি তার নিজে ভালোবাসার পথটি খুঁজে নিয়েছেন,অন্যদিকে সেই বাবা-মায়ের আপন সন্তানটি তাদের খোঁজ –খবরও নেয়না।
একজনের মা-বাবা থেকে খোঁজ নেয়না আরেকজন মা-বাবা নেই তবুও অন্যের মা-বাবাকে ভালোবেসে যাচ্ছেন।
পৃথিবীতে বসে যদি স্বর্গীয় সুখ পেতে চান তবে দয়া করে আপনার মা – বাবাকে ভালোবাসুন,বাবা-মাকে সম্মান করুন দেখবেন পৃথিবী আপনাকে সম্মান করবেন।যদি কোন ভুল করে থাকেনা তবে মা –বাবার কপালে একটি চুমু দিয়ে বলেন বাবা ভুল হয়েছে,মার পা জড়িয়ে ধরে বলেন মা তোমার জান্নাতে একটু যায়গা দেও মা। একদিন খুব শক্ত করে জড়িয়ে ধরবেন,খুব শক্ত করে দেখবেন,শান্তি কাকে বলে।
পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষ হতে চান।আপনার বাবা-মাকে খুব শক্ত করে জড়িয়ে ধরবেন বলেন বড্ড ভালবাসি যে তোমাদের।
দেখবেন পৃথিবীর সবচেয়ে সুখী মানুষ আপনি হবেন।
পূণ্য করতে মক্কা-কাবাশরীফ বা রথযাত্রায় যেতে হবেনা আপনার ঘরের মধ্যে সব পূণ্য রয়েছে।