ওয়েব সিরিজে উত্তাপ ছড়িয়ে তারা

ইমরুল শাহেদ

দেশী-বিদেশী স্যাটেলাইট নির্ভর টিভি ধারাবাহিক থেকে দর্শকের অখণ্ড মনোযোগ বিভাজিত হয়ে এখন চলে যাচ্ছে ইন্টারনেট ওয়েবসাইট ও ওয়েব টেলিভিশনের দিকে। এখানে এখন অস্তিত্বশীল হয়ে ওঠেছে ওয়েব সিরিজের ভিডিও বিনোদন। ইন্টারনেট বা ওয়েব টেলিভিশনে মুক্তি দেওয়া ওয়েব সিরিজের মাধ্যমে বিনোদনের ক্ষেত্র ক্রমশই বাড়ছে। এখন বিশ্বের অন্য দেশে এই মাধ্যমেই নতুন তারকার জন্ম হচ্ছে। দেশ-বিদেশে যারা চলচ্চিত্র বা অন্য কোনো মাধ্যমে প্রত্যাশিত সুযোগ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন, তারা এই ভিডিও বিনোদনের মাধ্যমেই নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করতে চান বা ওয়েব স্পেসে স্থান করে নিতে চান। ইন্টারনেট বা ওয়েব টেলিভিশন এখন শুধু ইউটিউবে সীমাবদ্ধ নেই। ওয়েবসাইট হিসেবে নেটফ্লিক্স, ইনফ্লিক্সসহ আরো অনেকগুলো সাইট যুক্ত হয়েছে। এখান থেকেই নবাগতদের অভিষেক ঘ

আইরিন

টছে। ইতোমধ্যে ঢাকার চলচ্চিত্রের প্রতিষ্ঠিত তারকা পপি, আঁচল এবং আইরিনের অভিষেক ঘটেছে ইউটিউব সাইটে।
ইন্টারনেট নির্ভর ওয়েব সিরিজো ধারাবাহিকতায় সর্বশেষ সংযোজিত হয়েছেন নায়িকা আইরিন। তিনি অনন্য মামুন পরিচালিত ‘পার্টনার’ সিরিজে কাজ করছেন। তবে এটি মুক্তির আগেই ওয়েব সিরিজে আইরিনের অভিষেক ঘটে যাবে সৈকত নাসিরের ‘ট্র্যাপড’র মধ্য দিয়ে। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে ইনোভেট সলিউশনের প্রযোজনায় বালিতে ‘ট্র্যাপট’র শুটিং হয়েছে। ঈদের আগের রাত থেকে ১২ পর্বের ওয়েব সিরিজটি ধারাবাহিকভাবে সিনেস্পটে মুক্তি পাবে। তবে এদেশে চিত্রতারকাদের মধ্যে ওয়েব সিরিজে প্রথম কাজ করেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া অভিনেত্রী পপি। তিনি অনন্য মামুন পরিচালিত ইন্দুবালা নামে একটি ওয়েব সিরিজে নাম ভূমিকায় অভিনয় করেন। ইন্দোবালার শুটিং হয়েছে কলকাতায়। পপি, রিয়াজ এবং নিপুণ একসঙ্গে ‘গার্ডেন গেম’ নামেও একটি ওয়েব সিরিজে কাজ করেছেন। এটি পরিচালনা করেছেন তৌহিদ মিতুল। বায়োস্কোপ অ্যাপস থেকে সিরিজটি প্রচার হবে। প্রযোজনাও করছে এ প্রতিষ্ঠান।
অনন্য মামুন পরিচালিত অনলাইনভিত্তিক নতুন সিরিজ ‘জার্নি’-তে অভিনয় করছেন আঁচল। তারুণ্যনির্ভর এ সিরিজে আরও আছেন ইমতু রাতিশ, বিপাশা কবির, সঞ্জু জন ও পাপিয়া। এর আগে একই পরিচালকের ‘ইন্দুবালা’ ওয়েব সিরিজে আইরিন চরিত্রে অভিনয় করেছেন আঁচল।
উল্লেখ করার বিষয় হলো, চিত্রতারকাদের নিয়ে ইউটিউব ওয়েব চ্যানেলের কন্টেন্টস প্রস্তুত করার ক্ষেত্রে এদেশে অগ্রজ হয়ে থাকছেন অনন্য মামুন।

ছবি: গুগল