কোন ধরনের অন্তর্বাস আপনার জন্য উপযুক্ত

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আমাদের দেশের তরুণীরা নিয়ত কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, অথচ তা আলোচনার মাধ্যমেও সমাধান সূত্রের দিকে এগোয় না তিনটি কারণে। প্রথমত আমাদের দেশের মেয়েদের মধ্যে এখনও এসব বিষয়ে সচেতনতার অভাব রয়েছে যথেস্ট। দ্বিতীয়ত এই সব বিষয়ে মন খুলে আলোচনা করার পথ জুড়ে থাকে অপরিসীম কুন্ঠাও লজ্জা। তৃতীয়ত আমরা বুঝতে পারি না ঠিক কার কাচে গিয়ে এবিষয়ে পরামর্শ নিতে পারি।Bra 1

এই মেয়েলী দীর্ঘ সমস্যার তালিকায় একটি হলো অন্তর্বাস। তাই অন্তর্বাস সংক্রান্ত নানা তথ্য দিয়েই  সাজানো হলো আমাদেব বয়স ১৯ এর তরুণী সদস্যদের জন্য।

অন্তর্বাস যদিও থাকে পোশাকের আড়ালে তবুও শরীরের গঠন ঠিক রাখতে এর গুরুত্ব যথেস্ট। অন্তর্বাস কেনার আগে প্রথমেই জানা দরকার আপনার সঠিক মাপ কী, কোন ধরনের অন্তর্বাস আপনার জন্য উপযুক্ত। কোন ধরণের পোশাকের সঙ্গে কোন ধরণের অন্তর্বাস প্রয়োজন।

বেশীর ভাগ তরুণীই সঠিক মাপের ব্রা পরেন না।ফলে বরাবরের মতো স্তনের গড়ন ও গঠন নস্ট হয়ে যায়। তাই প্রথমেই জানা প্রয়োজন কিভাবে নিজের মাপ নেবেন। ব্রার দুটি মাপ থাকে। প্রথমটি হলো উর্ধাঙ্গের ঘের আর দ্বিতীয়টি হলো স্তনের মাপ। একটা মাপ নেয়ার টেপ নিয়ে স্তনের ঠিক নিচে, পিঠ থেকে বুক অবধি অংশের মাপ নিন।মাপ নেয়ার সময় আযনায় দেখে নেবেন যে, টেপটি আপনার পিঠ ঘিরে সোজা আছে কিনা। যদি আপনার নেয়া মাপের সংখ্যাটি জোড় সংখ্যায় হয় তাহলে তার সঙ্গে ৪ ইঞ্চি যোগ করতে হবে।আর যদি বেজোড় হয় তাহলে ৫ ইঞ্চি যোগ করতে হবে। এটা হলো আপনার উর্ধঙ্গের ঘেরের মাপ। এবার পিঠ সোজা করে দাঁড়িয়ে হাত দুপাশে রেখে স্তনের ওপর দিয়ে টেপ দিয়ে মাপ নিন। সম্ভব হলে অন্য কাউকে বলুন আপনার মাপটি নিয়ে নিতে। আপনার স্তনের মাপ বা কাপ সাইজ জানতে হলে আপনাকে এবার দুটো মাপের মধ্যে তুলনা করতে হবে। যদি দুটো মাপই এক হয় তাহলে আপনার কাপ সাইজ হলো ‘এ’ যদি দুটো মাপের মধ্যে ১ ইঞ্চির তফাত হয় তাহলে আপনার কাপ সাইজ ‘বি’, ২ ইঞ্চির তফাত হলে কাপ সাইজ ‘সি’, ৩ ইঞ্চির তফাত হলে কাপ সাইজ ‘ডি’, ৪ ইঞ্চির তফাত হলে কাপ সাইজ ডি ডি।

অন্তর্বাস তখনই আরামদায়ক হবে যখন তার কাপে সম্পূর্ণ ভাবে স্তনটি ঢাকা থাকবে। এবং ব্রাটি পরার পর, আপনার স্তন পিছনে লাগানো হুকের সঙ্গে সমান লেবেলে থাকবে। এর জন্য ব্রার স্ট্রিপটি প্রয়োজন অনুযায়ী আপনাকে অ্যাডজাস্ট করতে হবে। ভালো ব্রা পরতে চাইলে এটাও খেয়াল রাখবেন যে, ব্রা যেন স্তনের নিচের অংশটিও অাঁট ভাবে ধরে রাখে।

অনেকের ভুল ধারনা আছে যে, ব্রার পেছনে ডাবল হুক থাকলে নাকি সেই ব্রা বেশী ভালো সত্যি বলতে কি ব্রা তে ডাবল বা সিঙ্গেল যাই হুক থাকুক না কেন তাতে কোন তফাত হয় না।

bra_less

যাদের ব্রার মাপ ৩৬ তারা কখনও লো-কাট ব্রা পরবেন না। এমন ব্রাও পরবেন না যা পড়লে আপনার স্তন নিচের দিকে নেমে যাবে। এমন ব্রা পরতে হবে যা আপনার শরীরের বেশ খানিকটা অংশ ঢেকে থাকবে।

ফ্রন্ট ওপেন ব্রা অবশ্যই পরতে খুব আরাম। তবে ফ্রন্ট ওপেন হলেই তা লোকাট হবে। ৩৬ এর মধ্যে যাদের সাইজ তারা পরতে পারেন ফ্রন্ট ওপেন ব্রা। কিন্তু যাদের মাইজ ৩৬ এর উপরে তাদের এধরণের ব্রা না পরাই ভালো। আর যারা ফ্রন্ট ওপেন ছাড়া একেবারেই পড়তে পারেন না তারা ব্রা কেনার সময় দেখে নেবেন যে, ব্রা তে যেন কমপক্ষে তিনটি হুক থাকে। এই ব্রা সম্পূর্ণ ভাবে আপনার স্তনকে ঢেকে রাখতে সাহায্য করবে। এবং স্তনকে তার সঠিক স্থানে ধরে রাখবে।

স্বাগতা জাহ্নবী

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]