চমকে দিলো জাপান

আহসান শামীমঃ বিশ্বকাপ শুরুর মাত্র ৭১ দিন আগে কোচ বদলের সিদ্ধান্ত জাপান দলের জন্য যে সঠিক ছিল সেটাই প্রমান করল আজ জাপান ফুটবল দল।তারা হারিয়ে দিলো কলম্বিয়াকে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই। দলের সাবেক কোচ ফিলিপ ত্রুসিয়ের এই জাপান দলকে নিয়ে কোনও আশাই করেনি ম্যাচের আগে। বরং কটাক্ষই করেছিলেন দল গঠন নিয়ে।

সাউথ আমেরিকার কোন দেশকে এর আগে কোন এশিয়ান দল বিশ্বকাপে হারাতে পারেনি। সেই ইতিহাসকে নতুন করে লিখলো জাপান কলাম্বিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়ে। কলম্বিয়ার বিপক্ষে এর আগে ৩ ম্যাচ খেলেছে জাপান। জয় পায়নি একবারও। ২০০৩ সালের কনফেডারেশন কাপে  ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছিল কলম্বিয়া। ২০০৭ সালে দ্বিতীয়বার মুখোমুখি হয় দুই দল ম্যাচটা ড্র হয়েছিল।২০১৪ সালের বিশ্বকাপের সর্বশেষ দেখায় ৪-১ গোলে জিতেছিলো কলম্বিয়া।

খেলার শুরু ৬ মিনিটের সময় স্পট কিক থেকে জাপানের অভিজ্ঞ মিডফিল্ডার শিনজি কাগাওয়া গোল করলে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় জাপান। খেলার ৩ মিনিটে পেনাল্টি বক্সে কার্লোস সানচেজ হাত দিয়ে গোল ঠেকানোর চেষ্টা করলে  লাল কার্ড পান। ম্যাচের শুরুতেই ১০ জনের দলে পরিণত হয় কলাম্বিয়া।

বিশ্বকাপ ইতিহাসে এটা দ্বিতীয় দ্রুততম সময়ে লাল কার্ড পাওয়ার রেকর্ড। এর আগে ১৯৮৬ সালে উরুগুয়ের বাতিস্তা মাত্র ৫১ সেকেন্ডের মাথায় স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন।

প্রথমার্ধের ৩৯ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে কুইনতেরো গোল করে কলম্বিয়াকে সমতায় ফেরান।দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ওসাকার গোলে ২-১ এগিয়ে যায় এশিয়ার পরাশক্তি জাপান, আর শেষ বাঁশি বাজার আগে কলম্বিয়া গোল পরিশোধ করতে ব্যার্থ হলে ইতিহাস গড়া জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে জাপান।

এবারের বিশ্বকাপে এশিয়ার দেশ ইরানও তাদের প্রথম খেলায় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে।বিশ্বকাপ ইতিহাসে এশিয়ানদের জন্য এমন ইতিহাস এবারই প্রথম।

ছবিঃ ফিফা