চলে গেলেন মমতাজউদদীন আহমদ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

একুশে পদক পাওয়া প্রখ্যাত নাট্যকার, নির্দেশক, অভিনেতা ও ভাষাসৈনিক অধ্যাপক মমতাজউদদীন আহমদ রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে ২ জুন রোববার বেলা ৩টা ৪৮ মিনিটে শেষনিশ্বাস ত্যাগ করেন।  অনেকদিন ধরেই তিনি বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন । অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে হাসপাতালে নেয়া হয় এবং চিকিৎসকের পরামর্শে আইসিইউতে রাখা হয়। ইতিপূর্বে অনেকবার লাইফসাপোর্ট থেকে ফিরে এলেও এবার আর ফেরা হলোনা।
স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশের নাট্য আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ তিনি। জগন্নাথ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নাট্যকলা বিভাগে খণ্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এ ছাড়া বিভিন্ন সরকারি কলেজে ৩২ বছর বাংলা ভাষা সাহিত্য এবং বাংলা ও ইউরোপীয় নাট্য বিষয়ে শিক্ষকতা করেন। তিনি ১৯৭৬-৭৮ সাল পর্যন্ত জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যসূচি প্রণয়নে একজন বিশেষজ্ঞ হিসেবে কাজ করেন। ১৯৭৭-৮০ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে গবেষণা ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক ছিলেন। এক অঙ্কের নাটক লেখায় বিশেষ পারদর্শিতার স্বাক্ষরও রেখেছেন তিনি।
মরহুমের প্রথম নামাজে জানাজা আজ বাদ এশা মিরপুরের রুপনগরে অনুষ্ঠিত হবে। আগামীকাল সকাল নয়টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাঁকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে নেয়া হবে।
বিনোদন ডেস্ক
ছবি: গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]