ছুটির হাওয়ায় টাইগার বাহিনী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীম

ভারতের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে পাঁচ দিনের ছুটি পেয়েছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। মানসিকভাবে নিজেদের সতেজ রাখতে সবাই নিজ নিজ পরিকল্পনায় ছুটি কাটাবেন। সবার আগে ছুটির দিনগুলোর পরিকল্পনা সাজিয়ে ফেলেছেন বিশ্বকাপে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা সাকিব আল হাসান।বিশ্বকাপে ব্যাট এবং বল হাতে ৬ ম্যাচে দুই সেঞ্চুরি ও তিন হাফ সেঞ্চুরিতে ৪৭৬ রান নিয়ে রান সংগ্রাহকের তালিকায় শীর্ষে আছেন বাংলাদেশ অলরাউন্ডার।সাথে বল হাতে নিয়েছেন ১০ উইকেট।

অন্যদিকে ক্রাচে ভর দিয়ে হাঁটছেন মাহমুদউল্লাহ।সাউদাম্পটনে আফগানদের বিপক্ষে বিশ্বকাপের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ছয় নম্বরে ব্যাটিং করে নামেন মাহমুদউল্লাহ। শুরুতেই সিঙ্গেল নিতে গিয়ে মাংশপেশিতে টান লাগে।দলের ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহন মাঠে গিয়ে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেন। চোটাক্রান্ত পায়ে কম্প্রেশন ব্যান্ডেজ বেঁধে খেলতে থাকেন মাহমুদউল্লাহ।মুশফিকের সাথে নিয়ে তারপর ৫৬ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়েন।৩৮ বলে ২৬ রানে আউট হওয়ার পর মাহমুদুল্লাহকে আর মাঠে দেখা যায়নি। আজ তাঁর স্ক্যান রিপোর্ট থেকে জানা যায়, ডান পায়ের মাংশপেশিতে গ্রেড ওয়ান টিয়ার ধরা পড়েছে বাংলাদেশি এই অলরাউন্ডারের। যে কারণে তাকে ক্রাচে ভর দিয়ে হাঁটতে হচ্ছে।

গ্রেড ওয়ান টিয়ার ইনজুরি থেকে সেরে উঠতে সাধারণত ৭ থেকে ১০ দিন সময় লাগে। ভারতের বিপক্ষে আগামী ২ জুলাইয়ের ম্যাচে মাহমুদউল্লাহকে পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই দলের ফিজিও আশা প্রকাশ করেছেন।

এদিকে বিশ্বকাপে টাইগারদের ১২ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে মাশরাফি জিতেছেন ৬ ম্যাচে। জয়ের হার  ৫০ শতাংশ। লাল সবুজের জার্সিতে ২০১৭ সালের ১৭ মে থেকে আফগানিস্তান ম্যাচের পর্যন্ত টানা  ৪৩ ম্যাচে নেতৃত্ব দিলেন অধিনায়ক মাশরাফি।মাশরাফির নেতৃত্বেই প্রথমবারের মতো পাকিস্তান, ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও সিরিজ জেতে বাংলাদেশ। ৮৩ ম্যাচে টাইগারদের নেতৃত্ব দিয়েছেন ম্যাশ। যেখানে জিতেছেন ৪৮ ম্যাচ, হেরেছেন ৩৪ ম্যাচ আর পরিত্যক্ত হয়েছে দুই ম্যাচ। জয়ের হার ৫৮.০২ শতাংশ।ইমরান খানের নেতৃত্বে পাকিস্তান জিতেছিল ৫৫.৯২ শতাংশ ম্যাচে, স্টিফেন ফ্লেমিং জিতিয়েছেন ৪৮ শতাংশ ম্যাচ। এখানেই কিংবদন্তিদের ছাড়িয়ে অবস্থান করছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি।

ওয়ানডেতে অধিনায়ক হিসেবে ম্যাচ জয়ের  দিক দিয়ে টাইগার অধিনায়ক পেছনে ফেলেছেন উইন্ডিজ কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা, পাকিস্তানের কিংবদন্তি অধিনায়ক ইমরান খান, ভারতের সৌরভ গাঙ্গুলি, মোহাম্মদ আজাহারউদ্দিন, নিউজিল্যান্ডের স্টিফেন ফ্লেমিংকেও।সাকিবের রেকর্ডের হিসাবে এই পরিসংখ্যানটা খতিয়ে দেখেননি অনেকেই।যেমন অপ্রকাশিতই থেকে গেছে এবারের বিশ্বকাপে ব্যাট হাতে ১৪০.৩৪ স্ট্রাইক রেট নিয়ে সেরাদের তালিকায় তৃতীয় স্থানে অবস্থান করছেন বাংলাদেশের মোসাদ্দেকও।

ছবিঃ গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]