টাইগারদের কোচ ডোমিঙ্গ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীম

হাথুরাসিং লঙ্কানদের কোচ থেকে বরখাস্ত হওয়ার পর পরই বিসিবি প্রধানের সাথে নিজেই ফোনে যোগাযোগ করেন। বিসিবি প্রধান হাথুরার ব্যাপারে বাংলাদেশের অনাস্থার কথা সরাসরি জানিয়ে দেন।পাকিস্তানের থেকে বহিস্কৃত হওয়ার পর অনেকটাই দূঃখ পেয়েছিলেন।বিসিবির সাথে ফোনে লম্বা সময়ের তাঁর পরিকল্পনার কথাও বলেছিলেন।বিসিবি অপেক্ষায় ছিলেন নিউজিল্যান্ডের কোচ হেসেনের জন্য। ভারতীয় বোর্ডের কাছে প্রত্যাখ্যাত হওয়ার পর হেসেন বাংলাদেশে না এসে ফিরে যান নিজে দেশে।

বারবার কথা দিতেও না আসায় হেসেনের জন্য অপেক্ষাটা ছেড়ে দিয়ে ডোমিঙ্গ কেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব দিলেন বিসিবি।বিসিবির সঙ্গে সাক্ষাৎকার দিতে ৭ আগস্ট সকাল ১০ টা ৪০ মিনিটে ঢাকায় আসেন ডমিঙ্গো। সেদিন বিকেল তিনটায় বেক্সিমকোতে হাজির হন প্রোটিয়া এই কোচ। সোয়া পাঁচটায় সাক্ষাৎকার শেষ করে সাড়ে পাঁচটার দিকে বেক্সিমকো থেকে বেরিয়ে যান ডমিঙ্গো।ডোমিঙ্গোর সাক্ষাৎকার মনে ধরেছিল বিসিবির কোচ বাছাই কমিটির সবার। তারপরও নিউজিল্যান্ড কোচ হেসেনের জন্য অপেক্ষায় ছিলেন বাছাই কমিটি।
বিসিবির মিডিয়া কমিটির মুখপাত্র জালাল ইউনুস জানান, ’বাংলাদেশের জন্য দীর্ঘ পরিকল্পনা নিয়ে এসেছিলেন ডমিঙ্গো। বাংলাদেশ দলকে নিয়ে ২০২০ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০২৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পরিকল্পনা পরিবেশন করেছেন তিনি।’ ডোমিঙ্গ দক্ষিণ আফ্রিকা টি-টোয়েন্টি দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন।এছাড়া গ্যারি কারস্টেনের সহকারী হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।২০১৭ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার দায়িত্ব ছাড়ার পর আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কোচিং করাননি তিনি। আবারও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কোচিং পেশায় ফেরার এখনই সেরা সময় মনে করেন ডোমিঙ্গ।তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের দায়িত্ব আমার জন্য বড় চ্যালেন্জ, দলটাকে সেরা দলেই পরিনত করবো।’

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]