তথ্য ফাঁস করলো রুশ গুপ্তচর

ইগর লেবেদেভ

আর মাত্র এক সপ্তাহ। তারপরেই রাশিয়ায় পর্দা উঠতে যাচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবলের। এই খেলার মহা আয়োজনে রাশিয়ার প্রশাসন কোনো ধরণের ঝুঁকি নিতে রাজি নয়। জার্মানি, ইংল্যান্ডের মতো দেশগুলোর উগ্র সমর্থকরা যাতে মাঠে বা মাঠের বাইরে মারামারিতে জড়িয়ে না পড়ে, সেজন্য অতিরিক্ত সতর্কতা নিচ্ছে সেখানকার প্রশাসন। কিন্তু তারমধ্যেই রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুটিনের এক আমলা বিতর্কিত মন্তব্য করে খোদ প্রশাসনকেই বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে। এই মন্তব্য শুনে বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীরাও নড়েচড়ে বসেছেন। আর  শুধু তাই নয়, একই সঙ্গে ইগর লেবেদেভ নামে ওই আমলার সঙ্গে এক সুন্দরী গুপ্তচরের গোপন সম্পর্কের কথাও সামনে চলে এসেছে এই ফাঁকে।

রাশিয়া ফুটবল ফেডারেশনের এগজিকিউটিভ সদস্য ইগরের নাম বিতর্কে জড়ানোয় রীতিমতো অস্বস্তিতে পুটিন প্রশাসন।অ্যানা চ্যাপম্যান নামে এক রুশ গুপ্তচরের সঙ্গে ইগরের ঘনিষ্ঠতার গুঞ্জন দীর্ঘদিন ধরে ঘুরছে রাশিয়ার কূটনীতি জগতের আনাচে কানাচে!‌ অ্যানার দাবি, এই কিছুদিন আগে ইগর তাকে বলেছেন, ‘‌খেলার মধ্যে দুই দলের সমর্থকদের মারামারি চলতেই পারে। আমার তো মনে হয় এই ধরনের সংঘর্ষকে আইনি অপরাধেরা তালিকা থেকে বের করে আনা উচিৎ। উদাহরণ হিসেবে ইংল্যান্ডের সমর্থকদেরই ধরা যাক। যেখানেই ওদের দলের খেলা থাকুক না কেন, ম্যাচের আগে থেকেই গিয়ে ওরা মারামারি শুরু করে। রাশিয়াতেও ওরা সেটাই করবে। আমার মনে হয় ওদের পাল্টা জবাব দেওয়ার জন্য অন্য দলের সমর্থকদের স্বাধীনতা দেওয়া উচিত।’‌

ইগরের এই বক্তব্য অ্যানা প্রকাশ্যে ফাঁস করে দিতেই শুরু হয়েছে সংকট। ইগর নাকি অ্যানাকে মারামারি অথবা সংঘাতে জড়ানোর পন্থা সম্পর্কেও বিশদ বিবরণ দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এজন্য প্রতি দলে থাকবে ২০জন করে লড়াকু সমর্থক। যে কোনও অস্ত্র ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে বন্দুক ব্যবহার করা চলবে না। রাশিয়ান সমর্থকদের সম্পর্কে ইগরের মতামত, ‘‌ওঁরা যোদ্ধা। সাধারণ গুণ্ডা নন। এই মারামারিটাই একটা খেলা হয়ে উঠবে।’‌

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

ছবিঃ গুগল