তাঁর ক্যামেরা আর কথা বলবে না

তাঁর হাতে ক্যামেরা আর কথা বলবে না। শাটারের ক্লিক শব্দেই আর জন্ম নেবে না অসাধারণ সব ছবি। হঠাৎ করেই বর্ণাঢ্য এক জীবনের উপর নেমে এলো যবনিকা। সূর্যদিঘল বাড়ি, এমিলির গোয়েন্দা বাহিনী, লালসালু, অন্যজীবন-এর মতো অসাধারণ সিনেমার চিত্রগ্রাহক, আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রী আনোয়ার হোসেন আজ মারা গেছেন।

আজ শনিবার পহেলা ডিসেম্বর সকালে রাজধানীর পান্থপথের একটি হোটেল থেকে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্টোকে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

দেশের এই উজ্জ্বল পুরুষের মরদের শহীদে সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে নেওয়া হয়েছে। ফ্রান্সে থাকা তার পরিবার বা গ্রামের বাড়ি সৈয়দপুরের স্বজনরা ঢাকায় পৌঁছালে তারাই সিদ্ধান্ত নেবেন লাশের ময়দা তদন্ত করা হবে কিনা।

আনোয়ার হোসেন গত ২৮ নভেম্বর ফ্রান্স থেকে দেশে ফিরে পান্থপথের হোটেলটিতে  উঠেন। আজ সকাল ১০টায় তার এই হোটেল ছেড়ে দেওয়ার কথা  ছিল। বেলা ১১টায় হোটেলকর্মীদের ফোনে পুলিশ এসে তার মৃতদেহ উদ্ধার করে।

আনোয়ার হোসেনের জন্ম ১৯৪৮ সালে, পুরান ঢাকায়। অসাধারন চিত্রগ্রহণের জন্য তিনি পাঁচবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৬৭ সালে আলোকচিত্রী হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন আনোয়ার হোসেন। তার বাবা সিনেমা অফিসে চাকরি করতেন বলে প্রচুর ছবি দেখার সুযোগ পেতেন। সেখানেই চলচ্চিত্রের প্রতি আগ্রহ তৈরি হয় তাঁর। সেই আগ্রহের কারণে স্থিরচিত্রের পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য বেশি কিছু ছবির সিনেমাটোগ্রাফি করেছেন তিনি।এক সময় টেলিভিশনের কিছু নাটকেও ক্যামেরা পরিচালনার কাজ করেছেন তিনি।

আনোয়ার হোসেন দীর্ঘদিন ধরে প্রবাসে বসবাস করছিলেন। তবে মাঝে মাঝে তিনি দেশেও থাকতেন।

প্রাণের বাংলা ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ ইন্টারনেট

ছবিঃ গুগল