ত্রিদেশীয় সিরিজ জয়ের স্বপ্ন বাংলাদেশের সামনে

আহসান শামীম

পর্যবেক্ষণে সাকিব,সামনে বিশ্বকাপ।দল নিয়ে বিশ্বকাপের আগে কোনই ঝুঁকি নিতে নারাজ, টিম বাংলাদেশ।আজ পর্যন্ত কোন ত্রিদেশীয় সিরিজ জেতা হয়নি বাংলাদেশের।ক্রিকেট ক্যারিয়ারে শেষ প্রান্তের কাছাকাছি এসে অধিনায়ক মাশরাফির চাওয়াটা নিশ্চয়ই ত্রিদেশীয় কাপ জয় করেই বিশ্বকাপ ময়দানে উপস্থিত হওয়া। দারুণ ফর্মে দল, বিদেশের মাঠে একের পর এক দাপুটে পারফরমেন্স করে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে বাংলাদেশ।

গতকাল আ্যায়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৫০ রান পূর্ন করার সময় ইন্জুরীর পরই তাঁকে মাঠ থেকে উঠিয়ে নেওয়া হয়। আজ অনুশীলনে ছিলেন না সাকিব।বিশ্বকাপের আগে আরও সতর্ক বাংলাদেশ ।এমন পরিস্থিতিতে  শুক্রবার ওয়েষ্ট উইন্ডিজের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় ফাইনালে মাঠে নামবে বাংলাদেশ।

২০০৯ সালে সর্বপ্রথম ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল খেলেছিলো বাংলাদেশ, প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে হেরে যায়। ২০১৬ সালে টি-টুয়েন্টির এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের কাছে হারতে হয় বাংলাদেশকে। ২০১২ সালের এশিয়া কাপ প্রতিপক্ষ ছিল পাকিস্তান। টানটান উত্তেজনার ম্যাচে হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় বাংলাদেশকে।

এশিয়া কাপ ও নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ভারতের কাছে পরাজয় জুটেছে কপালে। ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনাল ও ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচেও ভারতের কাছে হারতে হয়েছে মাশরাফিদের।২০১৮ সালের জানুয়ারিতে ঘরের মাঠে ফের জিম্বাবুয়ে এবং শ্রীলঙ্কাকে নিয়ে অনুষ্ঠিত ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে শ্রীলংকার কাছে হেরে যায় টাইগাররা।

এসব ইতিহাস করে ত্রিদেশীয় কাপটা ঘরে তুলতে মরিয়া বাংলাদেশ।শেষ লক্ষ্যটা অর্জন করে আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের অল-রাউন্ড পারফর্মেন্স করতে মনোযোগ দিতে উপদেশ দিলেন দলের খেলোয়াড়দের।নির্বাচকরা জানালেন, সাকিবের বিষয় তারা সিদ্ধান্তে পৌঁছাবেন আজই। যদি আঘাত গুরুতর না হয় ফাইনালে সাকিবকে দেখা যাবে এমনটাই মনে করছেন টিম ম্যানেজমেন্ট।

ছবিঃ ইএসপিএন