নিলামে বন্ডের গাড়ি

ঘন্টায় গাড়িটির গতিবেগ উঠে যায় ২৯৫ কিলোমিটার, পুরো গাড়ির কাঠামো তৈরী হয়েছে এক ধরণের বিশেষ হালকা অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে। এই গাড়ির আছে দুনিয়াজোড়া বিশেষ সুখ্যাতি। আর সেই খ্যাতির কারণ অ্যাশটোনা মার্টিন নামে এই গাড়িটি চালান দুনিয়া কাঁপানো এজেন্ট জেমস বন্ড। স্যার আয়ান ফ্লেমিংয়ের দুনিয়া কাঁপানো স্পাই থ্রিলার বইয়ের পাতা থেকে উঠে আসা চরিত্র বন্ডের ব্যবহৃত সব কাল্পনিক সামগ্রীরই তাই দুনিয়াজোড়া খ্যাতি।

সম্প্রতি বন্ড সিনেমায় ২০০৮ সালে ব্যবহৃত এ্ই অ্যাস্টোনা মার্টিন গাড়িটি নিলামে তুলেছিলো একটি নিলাম কোম্পানী। আর গাড়িটি বিক্রি হয়েছে ভারতীয় মুদ্রায় ৩ কোটি রুপীতে। বাংলাদেশী টাকায় যার মূল্য দাঁড়ায় ৬ কোটিরও বেশী।

নিলাম অনুষ্ঠানে বন্ড সিনেমার সর্বশেষ নায়ক ড্যানিয়েল গ্রেগ স্বয়ং উপস্থিত ছিলেন। সঙ্গে ছিলেন তার স্ত্রী। এই গাড়ির নিলাম বাবদ পাওয়া অর্থ দিয়ে দেয়া হবে আমেরিকার সমাজে সুবিধাবঞ্চিত তরুণদের লেখাপড়ার জন্য।

গাড়িটিতে বন্ডের অস্ত্রশস্ত্র না থাকলেও রয়েছে দামী ছামড়া দিয়ে মোড়া আসন। স্পোর্টস কারের আদলে তৈরী এই গাড়ির গতিও হবে সাধারণ কোনো গাড়ির চাইতে অনেক বেশী।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্রঃ টাইমস অফ ইন্ডিয়া

ছবিঃ গুগল