পথ চলতি…

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সুকন্যা সাহা

(কলকাতা থেকে): আজ  সকাল থেকেই বড় এলোমেলো হাওয়া বইছে … চৈত্র শেষ হয়েছে  … এখন বৈশাখ ; তবুও ।  এই সব  মন কেমন  করা হাওয়া বইতে   কোনো কারণ লাগে না ,  কোনো কারণ ছাড়াই ভিতর  ঘরে উথাল পাথাল ঘটিয়ে   দেয় , কেমন একটা কষ্ট পেতে থাকে ।

ক’দিন ধরেই তীব্র গরম । তাই আজ অফিসের পথে বেরিয়ে  পড়েছি সকাল সকাল । এখনও ক্যাটক্যাটে রোদ্দুরটা ওঠে নি তেমন। বাইরে কুসুম রঙা ভোর   না  হলেও বেশ  একটা আলোছায়াময় পরিবেশ । বিধাননগরের এ দিকটায়  এখনও গাছ পালা কিছু আছে । বিরাট কৃষ্ণ চূড়া  গাছে  ঝির ঝিরে  নরম পাতার  পোশাক ।

কমলা রঙের ফুল ভর্তি ডাল নুয়ে এসেছে ; পাশেই হলুদ রঙের  রাধাচূড়া  , একে অপরকে জড়িয়ে রয়েছে  নরম  বন্ধুত্বের বাঁধনে।  অটো চেপে পার  হয়ে   যাচ্ছি  একের পর   এক  ছবির মতো সাজানো বাড়ি । বাড়ির ছাদে   লাল টালি , কালো রঙের গ্রিলের ঘেরা বারান্দায় লতানো অ্যালামুন্ডা । গাঢ় হলুদ   রঙের । বারান্দায় দুটো বেতের চেয়ার । চোখ বন্ধ করে  দেখতে পেলাম

সামনে  ধূমায়িত চায়ের  কাপ… লিকার দার্জিলিং টি , অবসরপ্রাপ্ত মানুষটি  এখনও মর্ণিং ওয়াক সেরে এসে  গিন্নির  সঙ্গে  সকালের  চা  খান । মানুষের  কত কি যে অভ্যাস থাকে   এক জীবনে … আমি হাঁ করে তাকিয়ে থাকি বারান্দা গুলোর দিকে … বিভিন্ন প্যাটার্নের বাড়ি বিভিন্ন প্যাটার্নের  বারান্দা । কোথাও  বাড়ির  গেটে  লেখা  অভিলাষ  কোথাও নৌকাডুবি , বেশ  লাগে  আমার এই নামকরণ ।

গ্রিলের গেটের দু’পাশে গেট ল্যাম্প । ওপরে গোলাপী বোগেনভেলিয়ার  ঝাড় ।  দু’একটা কাগজের  ফুল এদিক ওদিক উড়ে পড়ছে এলোমেলো  হাওয়ায় । কোনো বাড়ির   ছাদের কার্ণিশে   আবার  রং বেরং য়ের  পিটুনিয়ার ঝাড় । গরমেও এখন পিটুনিয়া ফুটছে বেশ । বারান্দার নরম আলোয় সদ্য স্নাতা কোনো যুবতী বধূ এলো চুল মেলে দাঁড়িয়ে আছে … আমি দেখছি দেখেই চলেছি অবাক চোখে ।

অফিসের গেটের মুখটায় বড় বড় দুটো চাঁপা গাছ । মাটিতে  পড়ে রয়েছে  সুগন্ধী কাঠ চাঁপা … একটা দুটো  কুড়িয়ে নিলাম । বুক ভরে শ্বাস  নিলাম ফুলেল গন্ধের । lozern লেকের পাশে ঝির ঝিরে বৃষ্টিতে  বসে  কফি খাচ্ছো তুমি ।  দূরে বরফে ঘেরা আল্পস … ছবি ভেসে আসে  whatsapp এ  । আমার খালি মনে  হয় সুইৎজারল্যান্ডেও  এরকম  নরম রোদ্দুর  ওঠে ? অটো তে পাশে বসা  অল্পবয়সী ছেলেটার  চোখে মুখে  লেগে থাকে  রাত জাগার ক্লান্তি…

কে জানে  তার প্রেমিকার  জন্য সেও হয় তো  whatapp এ সবুজ আলো জ্বেলে সারারাত অনলাইন ছিলো । আবারও এলো মেলো হাওয়া দিচ্ছে … কেন জানি না তোমার কথা আজ মনে  পড়ছে খুব

ছবি: শাহানা হুদা রঞ্জনা

 

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]