ফিরে এলো কামুর প্লেগ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বইটি ২০২০ সালের ফ্রেব্রুয়ারী মাসে ইংল্যান্ডে বিক্রি হয়েছিলো ২২৬ কপি। এ বছরের জুলাই মাসে বইয়ের বিক্রি সংখ্যা ছিলো ৩৭১ কপি। আর বিষ্ময়কর ভাবে গত সপ্তাহে ইংল্যান্ডে এই বইয়ের বিক্রি সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২,১৫৬ কপি। বইটির নাম ‘দ্য প্লেগ’। দার্শনিক, ঔপন্যাসিক আলবেয়ার কামু’র পৃথিবী বিখ্যাত এই উপন্যাস হঠাৎ করেই ইংল্যান্ডের পাঠকদের ক্রয় তালিকার শীর্ষে উঠে এসেছে। হঠাৎ করেই কামুর উপন্যাস আবার নতুন প্রজন্মের পাঠকদের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে তাও বলা যাবে না। অতিমারীর এই দুঃসময় আসলে তাদের ফিরিয়ে নিয়ে গেছে এই উপন্যাসের কাছে।বিবিসি খবর দিয়েছে, এ বছর কামু’র মৃত্যুর ষাট বছর পূর্ণ হচ্ছে। প্যারিসের বইয়ের দোকানগুলো সাজানো হয়েছে তাঁর এই উপন্যাসটি দিয়ে।

ছড়িয়ে পড়ছে প্লেগ। সকলকে বাড়িতে কোয়ারেন্টাইন অবস্থায় থাকার কঠোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা রাতদিন কাজ করছেন আক্রান্তদের বাঁচাতে। কঠিন এক ভয়জড়িত পরিস্থিতির মঞ্চে কেউ তখন নায়ক, কেউ কাপুরুষ। কেউ ডুবে গেছে আত্মকেন্দ্রীকতায়, কেউ ভাবছে সংখ্যাগরিষ্ঠের কল্যান-এমনি এক শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি দিয়ে কামু সাজিয়েছেন উপন্যাসের প্রেক্ষাপট। এ উপন্যাসে পাঠক উপনীত হচ্ছেন এক নতুন চেতনায় যখন কামু লিখছেন, কোনো বেদনার মধ্যে, যে কোনও বড় ব্যথার মধ্যে মানুষ বড় একা। কিন্তু মহামারীর মৃত্যুমিছিল মানুষকে তার শোকের মধ্যে, যন্ত্রণার মধ্যে আর একা হতে দেয় না। মৃত্যুতরঙ্গের মাঝে মানুষের নিঃসঙ্গ বেদনা যেন অনেকটাই মোচন হয়ে যায়।

বাবার লেখা উপন্যাস করোনাকালে আবার নতুন করে পাঠকের আগ্রহের বিষয় হয়ে ওঠার খবর খুবই আনন্দিত আলবেয়ার কামুর ৭০ বছর বয়সী কন্যা ক্যাথারিন কামু।বাবার বইয়ের পুনঃমুদ্রণ,বইয়ের স্বত্ব সবকিছুই এখনো দেখাশোনা করেন ক্যাথারিন। সঙ্গে আছেন যমজ ভাই জিন। ‘প্লেগ’ উপন্যাসটি আবারও পাঠক আগ্রহ নিয়ে পড়ছে শুনে ক্যাথারিন দ্য গার্ডিয়ান পত্রিকাকে বলেন, হয়তো এই অবরুদ্ধ সময়ে আমরা খানিকটা সময় পেয়েছি কোনটা আসল আর গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তা অনুধাবন করার। আমরা হয়তো কিছুটা মানবিক হতেও শিখছি।

আলবেয়ার কামুর জন্ম আলজেরিয়ায়। তিনি মৃত্যুবরণ করেন ফ্রান্সে এক ভয়াবহ সড়ক দূর্ঘটনায়। তখন তাঁর বয়স মাত্র ৪৬ বছর। এক প্রকাশকের সঙ্গে গাড়িতে করে প্যারিসে ফিরছিলেন। হঠাৎই গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছে ধাক্কা দেয়। দুমড়ে মুচড়ে যায় গাড়ি। কামুও তৎক্ষনাত মারা যান।

এই বইটির প্রকাশক পেঙ্গুইন ক্লাসিকস। প্রকাশনা সংস্থার একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এখন বইটির পুনঃমুদ্রণের কাজ তুমুল গতিতে চলছে। অর্ডারের পর অর্ডার আসছে তাদের কাছে। আলবেয়ার কামু ‘প্লেগ’ উপন্যাস লেখা শেষ করেন ১৯৬৪ সালে।

প্রাণের বাংলা ডেস্ক
তথ্যসূত্রঃ দ্য গার্ডিয়ান
ছবিঃ গুগল


প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না, তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]


https://www.facebook.com/aquagadget
Facebook Comments Box