বাংলাদেশ থেকে কাঞ্চনজঙ্গা দর্শন

bd_himaloy-2

আকাশ পরিস্কার তাই কাঞ্চনজঙ্গার চূড়াও পরিস্কার

নিজের দেশ থেকে প্রথম সূর্যের আলোয় আলোকিত কাঞ্চনজঙ্গা কে দেখার অনুভুতি ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না । ক্যামেরার ছবি তে দেখা আর নিজের চোখ এ সামনা সামনি দেখা তা-ও আবার বাংলাদেশ থেকে সে আকাশ পাতাল ফারাক।আর  এখনই হলো উপযুক্ত সময় বাংলাদেশ থেকে হিমালয়ের সৌন্দর্য দেখে আসার।

bd_himaloy-3

আকাশ পরিস্কার না থাকলে এমনি হালকা দেখা যায়।

বাংলাদেশের সর্বোত্তরের জনপদ পঞ্চগড় যা হিমালয় কন্যা নামে পরিচিত। এটি বাংলাদেশের একমাত্র স্থান যেখানে থেকে নভেম্বর ও ডিসেম্বর মাসে যদি নেপাল, ভারত, এবং বাংলাদেশের আকাশ পরিস্কার থাকে তাহলে দেখা যাবে কাঞ্চনজঙ্ঘার চূড়া । এ সময় আকাশ মেঘাছন্ন না থাকায় প্রতিদিন এই সৌন্দয্য উপভোগ করতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছুটে আসছে নানান পেশাজীবি সহ ভ্রমনপিপাসু মানুষ।

bd_himaloy-4

ধান ক্ষেত থেকে হালকা কান্চনজঙ্গার চূড়া

বিশেষ করে প্রতিদিন ভিড় জমছে জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার মহানন্দা নদীর তীর ঘেষে গড়ে উঠা পিকনিক কর্নারসহ বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরে। এখান থেকে সুস্পষ্ট দেখা মিলে হিমালয়, কাঞ্চনজঙ্ঘার মনকাড়া অপরূপ দৃশ্য। কোথায় থেকে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখবেন: পঞ্চগড় বাস স্ট্যান্ড এর পাশেই ব্রিজের উপর থেকে ভাল ভিউ পেতে পারেন, পঞ্চগড় জেলা শহর থেকে কাছেই এর ভিতরগড় থেকেও ভালো ভিউ পাবেন।

bd_himaloy-7

ভদ্রেশ্বর মন্দির

তেতুলিয়া ডাকবাংলো থেকেও দেখা যায় কাঞ্চনজঙ্ঘা, আবার ডাক বাংলোর পাশে মহানন্দা নদীর পাশে খুব ভোরে কপাল ভালো হলে মাটিতে বসেও দেখতে পারেন কাঞ্চন  কে। আর কি কি দেখবেন: যেতে পারেন বাংলাবন্ধা স্থল বন্দরে, দেখেতে পাবেন দূর থেকে ফারক্কা বাঁধের কিছু অংশ এবং সমতলের প্রথম চা বাগান কাজী টি গার্ডেন,।

bd_himaloy-6

ফারাক্কা বাঁধ

ভজন পুর ও তেতুলিয়া মধ্যবর্তী বুড়াবুড়ি নামক স্থানে একটি দূর্গের ভগ্নাংশের, ভদ্রেশ্বর মন্দির, শিবমন্দির ও গ্রিক ভাস্কর্ষ রীতিতে নির্মিত দুটি সমাধিসম্ভ, কমলা বাগান । রাতের বেলা তেঁতুলিয়ার আকাশ থাকে লাল রংঙ্গে রঙ্গিন । রাতের বেলা তেঁতুলিয়ায় আসার আগে পঞ্চগর শহর থেকে বেড় হলেই বুঝতে পারবেন আপনি যেন কোন  শহরে যাচ্ছেন কারন তেঁতুলিয়া উপজেলার চার পাশে ভারতীয় সোডিয়াম বাতির আলোয় আকাশ লাল হয়ে আলোকিত হয়ে থাকে । পঞ্চগর শহর থেকে তেঁতুলিয়া বাংলাবান্ধা পর্যন্ত জাতীয় মহা সড়ক এত সুবিশাল মহা সড়ক উত্তর বঙ্গে আর কোথাও নাই।

পঞ্চগড়ের ভিতরগড় প্রত্নতাত্তিক সাইট এখানে দেখার মত একটি স্পট। ঘুরে আসতে পারেন বাংলাবান্দা জিরো পয়েন্ট থেকেও। আর তেতুলিয়া বাজারে সেই বিক্ষাত তেতুল গাছ না দেখলে কি হয় বলুন।

পঞ্চগড় নেমে একেবারে একটি অটো রিজার্ভ নিয়ে নিলে তেতুলিয়া সহ সব স্পট ঘুরিয়ে দেখাবে আপনাকে। কিভাবে যাবেন: ঢাকা থেকে হানিফ এবং শ্যামলী বাস সরাসরি পঞ্চগড় যায়। ভাড়া পরবে ৫৫০টাকা।