বাংলাদেশ-ভারত টেস্টঃ প্রস্তুত হচ্ছেন টাইগাররা

আহসান শামীমঃফ্রেব্রুয়ারী মাসের ৯ তারিখ শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট। দলের আহত ওপেনার ইমরুল কায়েস ভারতের বিপক্ষে খেলতে চান। ইমরুল জানান ,আজ রানিং এবং সাইক্লিং করেছেন তিনি। ব্যথা নেই , এখন ভাল অনুভব করছেন।তিনি বলেন, প্রত্যেক খেলোয়াড়ের স্বপ্ন থাকে ভারতের বিপক্ষে খেলার। আশা করি, আমার সে স্বপ্ন পূরণ হবে। যদিও ইমরুলের জায়গায় নির্বাচন কমিটির চোখ শাহারিয়ার নাফিসের দিকে। ভারতের বিপক্ষে দলে না থাকার সম্ভাবনা কাটার মাস্টার মুস্তাফিজের । শারীরিক সমস্যা না থাকলেও মুস্তাফিজ মানসিক সমস্যায় ভুগছেন । বাংলাদেশ টিম ম্যানেজমেন্ট মুস্তাফিজকে সময় দিতে প্রস্তুত । দলের ফিজিও দেবাশিষ এমনটাই জানালেন ।

টেষ্ট অধিনায়ক মুশফিকুরের আঙ্গুলের ব্যাথা নিয়েই নিয়মিত অনুশীলন করছেন । মুমিনুলের সিটি স্ক্যান হবে ৩১ জানুয়ারী । রিপোর্টের ভিত্তিতে মুমিনুলের দলে থাকা না থাকাটা নির্ভর করছে ।মুশফিক,  রাব্বী, সৌম্য সাকিব, তামিম, মাহমুদুল্লাহ ও মিরাজ  দলে থাকছেন এটা মোটামুটি নিশ্চিত । হাঁটুর ইনজুরির কারণে মাঠের বাইরে থাকা পেসার মোহাম্মদ শহীদ ইনজুরি কাটিয়ে উঠতে এবার উড়াল দিচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশ্যে। সেখানে অস্ট্রেলিয়ার বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ডেভিড ইয়াংয়ের তত্ত্বাবধানে থাকবেন তিনি।ইনজুরি সারাতে শহীদকে ডাক্তার ডেভিড ইয়াংয়ের ছুরির নিচে যেতে হবে কি না তা এখনও নিশ্চিত নয় জানিয়ে দেবাশীষ বলেন, ‘আমাদের ধারণা তার অস্ত্রোপচার লাগতে পারে। কিন্তু শেষ সিদ্ধান্ত যিনি অস্ত্রোপচার করবেন, তিনিই দেবেন।

হায়দ্রাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যকার এই ঐতিহাসিক টেস্ট। এর আগে হায়দ্রাবাদের এই মাঠে তিনটি টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।সর্বপ্রথম ২০১০ সালে ভারতের মুখোমুখি হয়েছিলো নিউজিল্যান্ড। এরপর ২০১২ সালেও ভারতের প্রতিপক্ষ ছিল কিউইরা।আর সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হায়দ্রাবাদে সাদা পোশাকে মাঠে নেমেছিলো ভারত। পরিসংখ্যান বলছে রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের উইকেট বরাবরই স্পিন সহায়ক।সেক্ষেত্রে ভারতের পাশাপাশি সুবিধা পেতে যাচ্ছে সফরকারি বাংলাদেশও। কারণ নিজ দেশে স্পিনিং উইকেটে খেলেই অভ্যস্ত টাইগাররা।

হায়দ্রাবাদের এই মাঠে এখন পর্যন্ত সবথেকে বেশি ১৮ উইকেট শিকার করেছেন ভারতীয় স্পিন অলরাউন্ডার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ৯টি উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন আরেক স্পিনার প্রজ্ঞান ওঝা।এরপর ৭ উইকেট নিয়ে তৃতীয় অবস্থানে আছেন হরভজন সিং। রবীন্দ্র জাদেজা আছেন চতুর্থতে, তাঁর উইকেট সংখ্যা ৬ টা। একমাত্র বিদেশি স্পিনার হিসেবে ৫ উইকেট নিয়ে পঞ্চমে আছেন কিউই স্পিনার ড্যানিয়েল ভেট্টোরি ।সুতরাং ঐতিহাসিক এই টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে ঘূর্ণি-জাদুর কারিশমা দেখাতে পারেন সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজরা।

এই টেস্টকে সামনে রেখে ভারতীয় এক গণমাধ্যমকে নিজের ভাবনার কথা জানিয়েছেন ভারতের উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহা। গত কয়েক বছরের পারফর্মেন্স বিবেচনায় ভারতীয় কন্ডিশনে টাইগাররা অনেক শক্তিশালী উল্লেখ করে ভারতীয় এই উইকেট রক্ষক বলেন,‘এটা খুব শক্ত একটা ম্যাচ হবে। গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ দল বেশ উন্নতি করেছে। দল হিসেবে এখন ওরা অনেক ভারসাম্যপূর্ণ। ওদের দলের দারুণ কিছু ভাল স্পিনার আছে। বেশ ক’জন ভাল ব্যাটসম্যান আছেন, যারা স্পিনের বিপক্ষে ভাল খেলেন। এর চেয়েও বড় ব্যাপার হল ভারত আর বাংলাদেশের কন্ডিশনের মধ্যে খুব একটা পার্থক্য নেই বললেই চলে’।