বিদ্ধস্ত…

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আহসান শামীম

গোলাপী বল আর নানান আয়োজনের সমাপ্তি ঘটেছে ইডেনে। এই ঝলমলে আয়োজনে বাংলাদেশ দলই যেন ছিলো বেমানান। প্রথম ইনিংসে মাত্র ১০৬ রান করার পর দ্বিতীয় ইনিংসে করতে পেরেছে ১৯৫ রান। দুই ইনিংস মিলিয়েও ভারতের ৩৪৭ রান ডিঙানো যায়নি।হেরেছে ইনিংস ৪৯ রানে।এই নিয়ে ভারতের টানা ৭ টেষ্ট জয়।

ভারত জিতবে, সবাই জানত। ভারত জিতুক, দিন শেষে এটাও ভারতবাসীর  চাওয়া। এত দ্রুত খেলা শেষ হয়ে যাক, সেটা ইডেনের দর্শকরা কেউ-ই চাননি। তৃতীয় দিনের সকাল থেকেই তাই বাংলাদেশের প্রতি রানের সঙ্গে শোনা যাচ্ছিলো তুমুল করতালি আওয়াজ পুরো ইডেন জুড়ে। মুশফিকুর রহিমের বাউন্ডারির সাথে সাথে চলছিল উল্লাস-ধ্বনি।টেষ্ট মেজাজটা হঠাৎই মাথা থেকে সরে দাঁড়ালো মুশফিকের।৭৪ রান করার পরই উমেশের স্লোয়ার বল মাথার ওপর থেকে উঠিয়ে মারতে গিয়ে জাদেজার হাতে তালুবন্দি হয়ে মুশফিক যখন সাজঘরের পথে তখন পুরো ইডেন জুড়ে স্তব্ধতা।

হ্যামস্ট্রিং ইন্জুরীর কারনে মাঠে নামা হয়নি মাহমুদুল্লাহর।

যদিও ভারতের বিপক্ষে দুই টেস্টেই মুশফিককে পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে দেখা গেছে। মুশফিক নিজেকে পাঁচ নম্বরের জন্য সেরা ভাবলেও তাতে বাংলাদেশ  দলের কী লাভ হচ্ছে সেটা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন জনপ্রিয় ক্রিকেট বিশ্লেষক হার্শা ভোগলে। সম্প্রতি এক টুইট বার্তায় তিনি মুশফিককে পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ উল হকের সাথে তুলনা করেছেন। হার্শা লিখেছেন, ‘মুশফিকুর রহিম হয়তো মিসবাহর মতো। সেও মনে করে ৫ নম্বরই তার জন্য সেরা। দলের জন্য কি সেরা এটা ?’

ভারতের ক্রিকেট প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলি বাংলাদেশের পার্ফরমেন্সে হতাশা প্রকাশ করেন। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের ক্রমাগত ইনজুরিতে পড়ার পেছনে বলের রঙকে অন্যতম কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন ভারতের ডানহাতি ব্যাটসম্যান চেতেশ্বর পূজারা। যদিও মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা এবং উমেশ যাদবদের আগুনে বোলিংকেও এগিয়ে রাখছেন তিনি।

কলকাতায় ভারতের বিপক্ষে দুই ইনিংস মিলে বাংলাদেশ খেলেছে মাত্র ৭১.৪ ওভার। শেষ টেস্টে হেরেছে ইনিংস এবং ৪৬ রানে। এমন হারের জন্য দল হিসেবে ভালো খেলতে না পারাকেই দায়ী করছেন টেষ্ট অধিনায়ক মুমিনুল।তিনি পরাজয়ের কারণ হিসাবে কোন অজুহাত দিতে নারাজ।

বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ ডামিঙ্গো পরাজয়ের পেছনে ব্যাটিং ব্যার্থতাকেই দেখছেন বড় করে। কলকাতা টেষ্টে টস জিতে ব্যাটিং নেওয়ার সিদ্ধান্তে তিনি কোন ভুল না দেখলেও, টস জিতে ব্যাটিং নেওয়ায় চটেছেন বিসিবি সভাপতি পাপন। তিনি জানান, ‘ ম্যাচের আগের রাতেও সিদ্ধান্ত ছিল টস জিতলে ফিল্ডিং নেওয়া হবে। টস জেতার পর হঠাৎ ব্যাটিং নেওয়ার বিষয় আমি বিস্মিত হয়েছি।’ তিনি কথা প্রসংগে আরও বলেন আমি অনেক ভারতীয় খেলোয়াড় আর কর্মকতাদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, টস জিতলে ভারত নতুন বলে আগে ফিল্ডিংই নিতো।

বাংলাদেশকে সাধারণ দল হিসেবে উল্লেখ করে ভারতীয় ক্রিকেট কিংবদন্তি সুনীল গাভাস্কার প্রশ্ন তুলেছেন খেলোয়াড়দের নিবেদন নিয়ে। ক্রিকেটের প্রতি বাংলাদেশের মানুষের প্রবল আবেগ-ভালোবাসা থাকা সত্ত্বেও বারবার দলের বিব্রতকর হার দেখতে পাওয়া সমর্থকদের প্রতি সহমর্মিতাও জানিয়েছেন তিনি।

ছবিঃ ইএসপিএন

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]