ভালোবাসার উপহার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পোস্টবক্স। ফেইসবুকের একটি জনপ্রিয় গ্রুপ। এবার প্রাণের বাংলার সঙ্গে তারা গাঁটছড়া বাঁধলেন। প্রাণের বাংলার নিয়মিত বিভাগের সঙ্গে এখন থাকছে  পোস্টবক্স-এর রকমারী বিভাগ। আপনারা লেখা পাঠান পোস্টবক্স-এ। ওখান থেকেই বাছাইকৃত লেখা নিয়েই হচ্ছে আমাদের এই আয়োজন। আপনারা আমাদের সঙ্গে আছেন। থাকুন পোস্টবক্স-এর সঙ্গেও।

মেহরাব চৌধুরী

জানি ভালোবাসার উপহার সে কেবলমাত্র; অনুভূত সেই ভালোবাসাই । তবুওতো জল গড়তে অক্সিজেনের সঙ্গে হাইড্রোজেন প্রয়োজন ! সেই অর্থে উপহারও ভালোবাসার সঙ্গে আসে বৈকি ! এ কথা মিথ্যে নয়, যুগে যুগে উপহারই জিইয়ে রেখেছে প্রেম, বাঁচিয়ে রেখেছে জগৎ সংসার। বেঁচে থাকা আর বাঁচিয়ে রাখার এই আজন্ম প্রতিষ্ঠালব্ধ খেলায় আমারও তাই অংশ নেয়া হয়েছে। অকালপ্রাপ্ত কিংবা বিকলপ্রাপ্ত সেইসব উপহার তালিকা থেকে যদি কোন একটিকে তুলে আনতে চেষ্টা করি, তবে প্রথমে উঠে আসে আমার বাবার নাম !

আমার বাবা । সৌখিন এক বিশাল মনের মানুষ। আমার কাছে মহামানুষ। একজন মহাবাবা। উনি একবার নিউমার্কেট গিয়েছিলেন কোন এক কাজে। ওখানে গিয়ে তার চোখ পড়ে ঝুলিয়ে রাখা একটা সোয়েটারের উপর। উনি তখন কেনাকাটা করে টাকা শেষ করে ফেলেছেন। সেই সময়ে না বিকাশ ছিলো, না এটিএম । কিন্তু, বাবার সেই সোয়েটার খুব পছন্দ হয়ে গেছে। মেয়ের জন্য পছন্দ মানেই ওটা তার চাই ই চাই।

বাবা দোকানিকে বললেন, এটা কতো দাম ? দোকানি দাম বলে বললো ফিক্সড।এবং এক পিসই এটা এসেছে। আব্বু তখন নিজের হাত থেকে সিকো ফাইভ ঘড়িটা খুলে দিয়ে দোকানিকে বললেন, জিনিসটা আমার পছন্দ হয়েছে। আমার মেয়ের জন্য নেবো আমি। আপনি এই ঘড়িটা রাখুন। এই সোয়েটার কাওকে দেবেন না। কারো কাছে বিক্রি করবেন না দয়াকরে। কালকে এসে আমি এটা কিনে নিয়ে যাবো ।

দোকানির চোখে পানি চলে এলো। সে বাবাকে  বললো, ভাই, একজন বাবার মন আমরা বুঝি। আপনাকে ঘড়ি দিয়ে যেতে হবে না। আমি এটা প্যাকেট করে  রেখে দিচ্ছি। আপনি আপনার মেয়ের জন্য কালকে এসে নিয়ে যান।

বাবা, বাসায় এসে মা কে গল্প করে শোনাচ্ছিলো কথাগুলো। পরদিন গিয়ে কিনে নিয়ে আসে বাবা সেটা আমার জন্য । এখনো যত্ন করে রেখে দিয়েছে মা সোয়েটারটা। সোয়েটার একটা ছিলো, অথচ উপহার ছিলো ওখানে দুইটা।

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]