মটোরোলার ‘জি-৭ পাওয়ার’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সাইফ তনয় (টেক ব্লগার)

স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মটোরোলার জি সিরিজের সপ্তম প্রজন্মের নতুন ফোন মটো জি-৭ পাওয়ার। তবে প্রযুক্তি দুনিয়াতে নতুন মটো জি সিরিজ নিয়ে নানা গুঞ্জন চলছে। অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোর মধ্যে ‘মটোরোলা জি’ সিরিজের স্মার্টফোনগুলোকে সবসময়ই অন্যতম ভালো ফোন হিসেবে বিবেচনা করা হয়ে থাকে। ‘মটো জি-৭ পাওয়ার’ স্মার্টফোনে এমন সব ফিচার আছে যা ফোনটি অনন্য হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। 

মটো জি-৭ পাওয়ারে আছে ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রম। তবে রম ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।  এতে ব্যবহার করা হয়েছে ১.৮ গিগাহার্টজ অক্টাকোর স্ন্যাপড্রাগন ৬৩২ প্রসেসর এবং ৬.২ ইঞ্চি ম্যাক্স ভিশন ডিসপ্লে। ফোনটিতে ৫,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে একবার চার্জ করে ছবি তোলা, মেইল করা, বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, গেমস ও মুভি দেখার পরও প্রায় তিন দিন চার্জ ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। এছাড়া ১৫ ওয়াটের টার্বো চার্জিং সুবিধার ফলে ১৫ মিনিট চার্জে ৯ ঘণ্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যায়। ডিভাইসটির পেছন দিকে এলইডি ফ্ল্যাশসহ ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা এবং সামনের দিকে ৮ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। স্মার্টফোনটির রিয়ার ক্যামেরা দিয়ে ফোর-কে রেজ্যুলেশন ভিডিও করা যায়। মটোরোলার এই ফোনটি দিয়ে ছবি তুলে সেগুলো ডিএনজি ফরম্যাটে সংরক্ষণ করা সম্ভব। মটোরোলা জি-সেভেনের ডান পাশে পাওয়ার এবং ভলিউম বাটন রয়েছে। এছাড়া এর ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সরটি আছে পেছন দিকে। ফোন হাতে ধরে থাকার সময় ওই সেন্সরটি যেন আপনি সহজেই অনুভব করতে পারেন সেজন্য কিছুটা ভিন্নভাবে তৈরি করা হয়েছে এই ফিঙ্গারপ্রিন্ট সুবিধা। এই সেটে রয়েছে এক্সক্লুসিভ শর্টকাট। এই শর্টকাট ব্যবহার করলে দ্রুত এবং স্বতঃস্ফূর্তভাবে আপনার পছন্দের ফিচার ও অ্যাপসগুলো একসেস করা যাবে। ডিভাইসটির নিচের দিকে একটি ইউএসবি-সি পোর্ট রয়েছে। মটোরোলা জি-৭ ইউএসবি-সি পোর্টের সাহায্যে আপনি টার্বো চার্জিং সুবিধা নিতে পারবেন। স্মার্টফোনটিতে ৩.৫ এমএম হেডফোর্ট জ্যাক রয়েছে। ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড-৯ ব্যবহার করা হয়েছে। ডিভাইসটির নেভিগেশন বার থেকে ব্যবহারকারীরা আনলক, মিডিয়া কন্ট্রোলস,স্ক্রিনশট এডিটর, থ্রি ফিঙ্গার স্ক্রিনশট, ফাস্ট ফ্ল্যাশলাইট, কুইক ক্যাপচার, পিক ডিসপ্লে, অ্যাটেনটিভ ডিসপ্লে ইত্যাদি অপশনে যেতে পারবেন।

ছবি: গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]