মাক্সিম হট…

‘মাক্সিম’ পত্রিকার ‘মাক্সিম হট হান্ড্রেড’ তালিকা বলে কথা। সেই তালিকায় এক নম্বর আসনটি দখল করার জন্য পশ্চিমা গ্ল্যামার দুনিয়ার সুন্দর, আকর্ষণীয় পাত্রীদের আকূলতার শেষ নেই। গেল বছর পত্রিকাটির বিচারে এই মুকুট ছিলো হ্যালি বল্ডউইনের মাথায়। কিন্তু এ বছর এই উত্তপ্ত একশ‘র তালিকায় এক নম্বকর হলেন মার্কিন সুপার মডেল কেট আপটন।

মাত্র ২৬ বছর বয়সী স্বর্ণকেশী কেট তার চিমৎকার হাসি আর আবেদনময় দেহবল্লরী দিয়ে স্থান করে নিলেন তালিকার শীর্ষে।২০০০ সাল থেকে মাক্সিম এই তালিকা প্রকাশ করছে।

কেট অবশ্য শুধু নিজের শরীরকে এই বিচারের ক্ষেত্রে এগিয়ে রাখতে রাজি নন। তিনি মাক্সিম পত্রিকাকে জানিয়েছেন, গোটা বছর নিজের কাজ নিয়ে কঠিন পরিশ্রম করেছেন তিনি। আর সেই পরিশ্রমের ফসল হচ্ছে এই স্বীকৃতি।

ছেলেবেলায় আমেরিকার মিশিগান রাজ্যে ঘোড়ার পিঠে চড়েই দিন কেটেছে এই সুপার মডেলের। জীবনে হতে চেয়েছিলেন পেশাদার ঘোড়সওয়ার। কিন্তুনিয়তি তাকে নিয়ে এসেছে এই ফ্যাশন দুনিয়ার আলো ঝলমল পৃথিবীতে।

মাক্সিম পত্রিকার ফটোশ্যুট হয় ইসরাইলে। সেখানে মরুভূমি আর ডেড সী এলাকায় কেটের ভীষণ উত্তেজক ফটোসেশন চলেছে।

ভবিষ্যতে অভিনয় করার আগ্রহ আছে কেটের। ইতিমধ্যে ক্যামেরন ডিয়াজ আর আলেক্সান্দ্রিয়া দেদিয়ারোর সঙ্গে ‘আদার ওম্যান’ এবং ‘লেওভার’ নামে দুটি ছবিতে অভিনয়ও করেছেন এই মডেল। কিন্তু ভালো একটি চরিত্রের জন্য অপেক্ষা করতে চান কেট। কারণ হলিউডে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার ব্যাপারটাকে খুব সহজ কোনো বিষয় বলে মনে করেন না তিনি। মডেলিংয়ের মতো অভিনয়ের নিজের সেরাটাই দিতে চান কেট।

বিনোদন ডেস্ক

তথ্যসূত্র ও ছবিঃ মাক্সিম