মুর্শিদা জামানের ৩টি কবিতা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মুর্শিদা জামান

কান্নার জন্য একটা মানুষচাই

এখন বুঝি কান্নার জন্য অপেক্ষা
এও এক দুর্লভ প্রেম
জীবনের জংগলে অচেনা গাছের দেহ হাতড়াই ছায়া সে তো দীর্ঘ যাত্রা,
যতবার সমুদ্দুর দেখার সময় বের করা যায়
কী করে পাহাড় পাহাড় যন্ত্রণা কেবল পথ আগলায়।
এ কী অদ্ভুতুড়ে মেঘ কাঁদতেও দেবেনা
আমি যে সমবেত কান্নার বিউগল-এ চোখ ভেজাই
নিজের কান্নার শব্দ রেকোর্ড করা যায় কি?
তবে যে সেও এক তুমুল ঝড় বৃষ্টি
রাতগুলোঅপেক্ষা করে
সিমেট্রির মত মৃতেরচিহ্ন নিয়ে

জ্যান্ত ঘাসের নিচে
শুয়ে থাকে এক একটি গল্প যেমন।
কান্নার জন্য একটা গল্প, একটা মানুষ একটা ফাঁদ
চাই, নিজের ভেতরের জংগলে একটা পায়ের চিহ্ন
চাই, একা একা কতদূর, বল কতদূর?

 

আরাধ্য নির্জন

তার দেখা পাবার জন্য দিনযাপনের এই যে যাতায়াত
তাতে নোনাধরে ,ঝুরঝুরে চুনসুরকি খসে পড়ে।
পাথুরে আকাক্সক্ষা পথে পথে শ্যাওলা
তবু ফোটে বন্য কাতর প্রেম
হাজার বর্ষা শেষে আসবে সে বসন্ত
শুধু চোখের দ্যাখায় রক্তের উড়ন্ত পাখায়
সবটুকু কোলাহল পেয়ে যাবে আরাধ্য সেই নির্জন।

 

মানুষ নির্বাচন করবে একটি সদয় গাছ

পৃথিবী কত কতবার যে তুমি ধ্বংস হয়েছ আর তার বহু পরে আমার জন্ম ।
ভাঙ্গা পাথর,ভাঙ্গা দেয়াল
এসবই তো সব নয় আমরা দেখতে চেয়েছি আত্মার ভেতর দিয়ে
বহু বহু আত্মার চলাচল, যেখানে মোমের আলোও নিছক উপস্থিতি।
আমার মৃত্যুর পরও কত কিছু ভেঙ্গে পড়বে
হয়ত মানুষ নির্বাচন করবে একটি সদয় গাছ ।
আবিষ্কার হবে অন্য মানুষ অন্য পাথর অন্য আগুন।

রাতভর গান মানেই তোমার উপস্থিতি
অদৃশ্য আলিঙ্গনে কফিকাপ গড়াগড়ি
দুজনার বায়ুজলে সুলভ স্ফীতি।

অলংকরণ: গুগল ও প্রাণের বাংলা

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]