যুদ্ধের অস্ত্রে শান দেয়া শেষ টাইগারদের

আহসান শামীম

সমারসেটের টন্টনে এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপে ম্যাচ হয়েছে একটাই। অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান ম্যাচে বৃষ্টি বাগড়া না দিলেও পুরোটা সময়ই মেঘলা ছিল সেখানকার আকাশ। আগামী সপ্তাহেও টন্টনে বৃষ্টি হওয়ার জোর সম্ভাবনাই জানাচ্ছে আবহাওয়া পূর্বাভাস।

ওয়েষ্ট উইন্ডিজের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে আগে দ্বিতীয় দিনে অনুশীলনের সময় মুস্তাফিজের বলের আঘাতে আহত হয়ে মাঠ ছাড়েন মুশফিক।অবশ্য পরীক্ষার পর আঘাত গুরুতর না হওয়ায় স্বস্তি ফেরে বাংলাদেশ দলে।ইন্জুরীমুক্ত হয়ে সাকিব প্রায় ৪১ মিনিট ধরে ব্যাট হাতে অনুশীলন করেছেন। তামিম তার পুরানো ওস্তাদের কাছ থেকে কিছু টিপস নিয়ে কঠোর অনুশীলনে ব্যাস্ত ছিলেন।

তবে বাংলাদেশ দলের মুশফিক আর উইন্ডিজ দলের আন্দ্রে রাসেলের খেলার সম্ভাবনা কম বলে অসমর্থিত সূত্রে জানা গেছে।

ওয়েষ্ট উইন্ডিজের বিপক্ষে শর্ট আর পেসার সামাল দেওয়ার পরিকল্পনা গুছানোর কাজ শেষ।টস জিতলে ফিল্ডিং, টস হেরে গেলে প্রথম দশ ওভারে যাতে ওপেনিং জুটি উইকেট না হারায় সেই প্রচেষ্টার অনুশীলনও করে শেষ।একাদশে যুক্ত হবেন মিঠুনের পরিবর্তে রুবেল।লিটন দাশ যুক্ত হলে সাইড লাইনে মোসাদ্দককে বসে খেলা দেখতে হবে।বল আর ব্যাট হাতে মোসাদ্দেকের পার্ফমেন্সে যদিও সন্তুষ্ট টিম ম্যানেজমেন্ট। মিঠুনের পরিবর্তে লিটনকে টিম ম্যানেজমেন্ট একাদশ ভুক্ত করতে চান। পাবলিক ডিমান্ডের কারনে বিসিসিবি বস রুবেলকে খেলানোর পক্ষে।এসব নিয়ে কিছুটা দোটানায় টিম ম্যানেজমেন্ট।

অধিনায়ক মাশরাফির চিন্তায় টন্টনের মাঠের আকৃতি আর বৃষ্টি।তাকে নিয়ে সমালোচনাগুলো তিনি কোন অবস্থায় ড্রেসিং রুমে ঢুকতে দিতে চাননি, তারপরও ঢুকে পড়েছে।এজন্য বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের মানসিক চাপ বেড়েছে।চাপটা যাতে দলের বিপর্যয় ডেকে না নিয়ে আসে, সেই জন্য টিম ম্যানেজমেন্ট কাজ করে যাচ্ছেন। দলের ভেতর বাড়তি এই চাপের জন্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দলের প্রধান কোচ স্টিভ রোডর্স আর বোলিং কোচ কোর্টিন ওয়ালশ।তাঁদের বক্তব্য খুব সহজ- ‘মাশরাফি শেষ হয়ে গেছেন বলে যারা চিৎকার করছেন, তাদের জানা উচিত দশ বছর আগে থেকেই মাশরাফি ক্রিকেটের জন্য অযোগ্য ছিলেন।মাশরাফির বোলিং গতি আগেও ১২৫ ছিল এখনও সেটাই আছে।’

সম্প্রতিক ভারতের অজিত আগাকার বাংলাদেশ দল থেকে মাশরাফিকে বাদ দেওয়ার পরামর্শ দেন।এতে ক্ষেপে উঠেছেন দলের খেলোয়াড়রা। গণমাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকারে দলের ওপেনিং ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল কারো নাম উল্লেখ না করেই বলেছেন, ‘যে সব বিদেশীরা মাশরাফিকে দল থেকে বাদ দেওয়ার কথা বলছেন, তারা তাদের অতীত আর নিজ দেশের দলের প্রতি চোখ রাখুন।বাংলাদেশ দল কাকে দলে রাখবেন আর কাকে বাদ দেবেন সেটা বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্টকে ভাবতে দেন।’

গত ১২ মাসে ৯ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৯ বারের মধ্যে বাংলাদেশের জয় ৭ আর হেরেছে মাত্র ২ ম্যাচে।ক্যারিবিয়দের বিপক্ষে ধারাবাহিক ভাবে সাফল্য পাওয়ার কারণে ৭ জুনে বিশ্বকাপের ম্যাচেও নিজেদেরই ফেভারিট মনে করেন তামিম ইকবাল।অন্যদিকে, ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সেমিফাইনালেই দেখছেন দলের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। সেই সাথে  বাংলাদেশকে হারানোর ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী তিনি। জেসন হোল্ডার বলেন, ‘যারা মনে করে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সম্ভাবনা নেই সেমিতে খেলার তারা বোকার স্বর্গেই বাস করে। এখনও অনেক খেলা বাকী। মাত্রতো চার খেলা শেষ হয়েছে আমাদের। বাকী ম্যাচ গুলোতে ঘটতে পারে অনেক ঘটনাই।’

ছবিঃ গুগল