যোনিরও যত্ন নিতে হয়…

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

 

নিজেকে সুন্দর ও আকর্ষণীয় দেখাতে আমরা চুলে থেকে শুরু করে নখেরও যত্ন নেই।ফিগার ধরে রাখার চেষ্টারও  কোনো ত্রুটি করি না। কিন্তু আমরা কি কখনও   নারীদেহের বিশেষ কিছু অংশের যত্ন নেই?ধরুন না যোনি… এর সংক্রমণের জেরে মেয়েরা অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে।তাই যোনিরও যত্ন নিতে হয়।

* প্রতিদিন সকালে অফিস যাওয়ার আগে  বা গোসলের সময় ভাল করে যোনি পরিস্কার করে নিবেন। পরিষ্কার এবং হালকা গরম পানি দিয়ে নরম কাপড় দিয়ে যোনি পরিস্কার করবেন।কখনও খসখসে কাপড় ব্যবহার করবেন না।ইচ্ছে করলে  ভি-ওয়াশ জাতীয় লোশন ব্যবহার করতে পারেন।তবে সাবান বা ক্ষার জাতীয় কিছু ব্যবহার করবেন না। যোনি ধোওয়ার পর নরম তোয়ালে দিয়ে মুছে নেবেন।

* গরমের  শরীরে ঘাম হয় তখন যোনিও খুব ঘামে।এই ঘাম থেকে ব্যাকটেরিয়ার জন্ম হয় এবং যোনিতে সংক্রমণ হওয়ার ভয় থাকে। তাই সুতির অন্তর্বাস ব্যবহার করবেন।ঘরে থাকলে অন্তর্বাস ছাড়াই থাকতে পারেন।

* কোন ধরণের ডিও বা বডি স্প্রে ব্যবহার করবেন না। যোনির ত্বক খুবই নাজুক এতে ত্বকের সমস্যা হতে পারে।

*ইত্যাদি খেলে যোনির সংক্রমন এড়াতে চাইলে আপেল, অ্যামন্ড, অ্যাভোকাডো, দই খাবেন। পাশাপাশি, সারাদিনে প্রচুর পরিমাণে পানি খাবেন।তৈলাক্ত,মশলাদার, ভাজাভুজি,খাবার এমনকি  জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে কম খাবেন।

*যোনি থেকে ডিসচার্জ হওয়া স্বাভাবিক। যোনির ভিতর জমে থাকা জীবাণু এই উপায়ে শরীর বাইরে বের হয়ে আসে।হালকা হলুদ বা সাদা রঙ ছাড়া যদি অন্য রঙের ডিসচার্জ হয়, এবং তা ঘন আঠার মতো চটচটে হয়, সঙ্গে তীব্র দুর্গন্ধ থাকে কিংবা যন্ত্রণা হয়, তা হলে অবশ্যই ডাক্তারে সঙ্গে কথা বলবেন।লজ্জায় মুখ বন্ধ রাখলে আপনিই বিপদে পড়বেন।

*সেক্সের পর অবশ্যই যোনি পরিষ্কার করে নেবেন।এতে  যোনির ভিতরে জমে থাকা বীর্য বেরিয়ে যাবে এবং ব্যাকটেরিয়া জমে সংক্রমণের ভয় থাকবে না।

*মাসিকের সময় ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের ভয় বেশি থাকে। সারাদিন একটা প্যাড পরে থাকলে ভিজে জায়গায় ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে। তাই প্যাড বদল করা বাঞ্ছনীয় ।দিনে অন্তত তিন থেকে চারবার প্যাড বদল করবেন।

*যোনির কেশ বড় হয়ে গেলে ট্রিম করে ফেলুন বা শেভ করুন। এর ফলে যোনি পরিষ্কার রাখতে সুবিধা হবে, সংক্রমণের আশঙ্কাও কমবে। কিন্তু, এখানে কোনও হেয়ার রিমুভিং ক্রিম ব্যবহার করবেন না।

ছবি: গুগল

প্রাণের বাংলায় প্রকাশিত সব লেখা লেখকের নিজস্ব মতামত। লেখা সংক্রান্ত কোনো ধরনের দায় প্রাণের বাংলা বহন করবে না। প্রাণের বাংলার কোনো লেখা কেউ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করতে পারবেন না তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করতে পারবেন । লেখা সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ অথবা নতুন লেখা পাঠাতে যোগাযোগ করুন [email protected]