রাতে ব্যাংকক নেওয়া হবে

আজ সারাদিন দেশের বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা ও কথা সাহিত্যিক আমজাদ হোসেনকে নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়েছিলো। বহু মানুষ বিভিন্ন গণমাধ্যমের অফিসে ফোন করে জানতে চাচ্ছিলেন তিনি বেঁচে আছেন কি না?
পরে অবশ্য জানা গেছে গত কিছুদিন ধরে গুরুতর অসুস্থ আমজাদ হোসেনের উন্নত চিকিৎসার জন্য আজ রাতে তাকে ব্যাংককে নেওয়া হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ছেলে অভিনেতা ও নাট্যনির্মাতা সোহেল আরমান। আজ মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই নির্মাতাকে থাইল্যান্ডের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।
এ বিষয়ে সোহেল আরমান বলেন, ‘আব্বা আগের তুলনায় এখন অনেক ভালো আছেন। এরই মধ্যে আমরা এয়ার অ্যাম্বুলেন্স কর্তৃপক্ষকে এ তথ্য দিয়েছি। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় তারা ব্যাংকক থেকে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হবে এবং রাত ১০টায় ঢাকা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে অবতরণ করবে বলে আমাদেরকে নিশ্চিত করেছে।’
গুরুতর অসুস্থ নির্মাতা আমজাদ হোসেনের উন্নত চিকিৎসার সকল খরচ বহন করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত রোববার রাতে প্রধানমন্ত্রী গুণী এ নির্মাতার পরিবারের কাছে ৪২ লাখ ৩৫ হাজার টাকার চেক হস্তান্তর করেন।
উল্লেখ্য, রাজধানীর তেজগাঁওয়ের ইমপালস হাসপাতালে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে আছেন খ্যাতিমান নির্মাতা আমজাদ হোসেন। গত ১৮ নভেম্বর সকালে নিজ বাসায় ঘুমের মধ্যে তার স্ট্রোক হয়। এরপর তাকে দ্রুত নেওয়া হয় রাজধানীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে। উন্নত চিকিৎসার জন্য পরবর্তীতে তাকে ইমপালস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার চিকিৎসার তত্ত্বাবধান করছেন হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগের চিকিৎসক মহিউদ্দিন।
৭৬ বছর বয়সী আমজাদ হোসেন একাধারে চলচ্চিত্র পরিচালক, প্রযোজক, গল্পকার, অভিনেতা, গীতিকার ও সাহিত্যিক হিসেবে পরিচিত। দীর্ঘ বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে তিনি ‘ভাত দে’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘সুন্দরী’, ‘দুই পয়সার আলতা’, ‘জন্ম থেকে জ্বলছি’র মতো অসংখ্য কালজয়ী সিনেমা নির্মাণ করেছেন।

ছবি: গুগল