রেকর্ড বইতে নাম লেখালেন ইমরুল

আহসান শামীমঃ রেকর্ড বইয়ে নাম লেখালেন ইমরুল কায়েস।  ব্যাটসম্যান ইমরুল রেকর্ড গড়লেন উইকেটকিপার হিসেবে । টাইগাদলের টেষ্ট অধিনায়ক নিয়মিত উকেটকিপার ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের চোটে ওয়েলিংটন টেস্টে কিপিং করতে বাধ্য হন ইমরুল। ঠেকার কাজ চালাতে গিয়েই নাম তুললেন ইতিহাসে। উইকেটের পেছনে নিয়েছেন পাঁচ-পাঁচটা ক্যাচ। টেস্ট ইতিহাসে এই প্রথম ইনিংসে ৫ ক্যাচ নিলেন কোনো বদলি কিপার। কিন্তু তারপর পেশীতে টান লেগে মাঠ ছাড়লেন তিনি।

ওয়ালিংটন টেষ্টের তৃতীয় দিনে জিত রাভালের ক্যাচ নিয়ে ইমরুলের শুরু। পরে নিয়েছেন কেন উইলিয়ামসনের ক্যাচ। চতুর্থ দিনে তার গ্লাভসে জমা পড়েছে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের ক্যাচ। বিজে ওয়াটলিংয়ের ক্যাচটা তো ছিল অসাধারণ। লেগ স্টাম্পের বাইরে মাহমুদউল্লাহর বাজে বলটাকে যেভাবে ক্যাচ নিয়েছেন, সেটা গর্বিত করবে যে  কোনো বিশেষজ্ঞ কিপারকেও।যার বলে নিয়েছিলেন প্রথম ক্যাচ, সেই কামরুল ইসলাম রাব্বির বলে  ওয়েগনারের ক্যাচ নিয়ে পূর্ণ করেছেন পঞ্চম ডিসমিসাল।

২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনায় মুশফিকের চোটেই ১২০ ওভার কিপিং করেছিলেন ইসরুল। তবে সেবার ছিল না কোনো ডিসমিসাল।বাংলাদশের হয়ে ইনিংসে সবচেয়ে বেশি ডিসমিসালের রেকর্ডও স্পর্শ করেছেন ইমরুল। দুই দফায় ইনিংসে পাঁচ বার ডিসমিসাল করেন মুশফিক। ২০১০ সালে ভারতের বিপক্ষে মিরপুরে, ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কলম্বোয়। অবশ্য উইকেটকিপার হিসাবে রেকর্ড করার পর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়েলিংটন টেস্টের চতুর্থ দিন নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসের ১২ তম ওভারের পঞ্চম বলে রান নিতে গিয়ে হ্যামস্ট্রিংয়ে টান খান ইমরুল।এরপর স্ট্রেচারে চেপে মাঠ ত্যাগ।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, হাসপাতালে নেয়া হয়েছে তাকে। এই টেস্ট  কার্যত শেষ ইমরুলের পাশাপাশি পরবর্তী টেস্টেও তাঁর খেলা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে।আর ইমরুল মাঠের বাইরে থাকলে বাংলাদেশ দলের উইকেট রক্ষক কে হবেন সেটা নিয়েও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বেসিন রিজার্ভের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ের সময় হাতে চোট পেয়ে মাঠ ছেড়েছিলেন অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। এরপর আর মাঠেই নামেননি তিনি।যদিও পঞ্চম দিনে আগামীকাল মুশফিকুর রহিম দলের বিপর্যয় ঠেকাতে ব্যাট হাতে মাঠে নামার কথা রয়েছে।